kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৬ মাঘ ১৪২৮। ২০ জানুয়ারি ২০২২। ১৬ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

পাঁচ বিভাগের নেতাদের সঙ্গে বিএনপির বৈঠক

নেতাকর্মীদের আন্দোলনমুখী করার তাগিদ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নির্দলীয় সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচন ও নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের দাবিতে রাজপথের আন্দোলনে যাওয়ার বিষয়ে মতামত দিয়েছেন বিএনপি নেতারা। নেতারা বলেন, ২০১৪ ও ২০১৫ সালের আন্দোলনে পুরো দেশ উত্তাল হলেও ঢাকা ছিল নীরব। এ কারণে ওই দুটি আন্দোলন ব্যর্থ হয়েছে। তাই এবার আন্দোলনে যাওয়ার আগে দলটির সব নেতাকর্মীকে আন্দোলনমুখী করতে হবে। একই সঙ্গে দেশজুড়ে ত্যাগী ও যোগ্যদের মূল্যায়ন করতে হবে।

গতকাল বুধবার রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে করণীয় নির্ধারণে পাঁচ বিভাগের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন দলের শীর্ষস্থানীয় নেতারা। এ সময় তাঁরা এসব কথা বলেন। দ্বিতীয় দফার দ্বিতীয় দিনে অনুষ্ঠিত এ বৈঠকে চট্টগ্রাম বিভাগের ৩৭ জন, কুমিল্লার ২৩ জন, ময়মনসিংহ বিভাগের ১৮ জন, সিলেট বিভাগের ১৪ জন, রংপুর বিভাগের ১৭ জন নির্বাহী সদস্যসহ ১২৯ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হলেও উপস্থিত ছিলেন ৮৫ জন।

বৈঠকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, সেলিমা রহমান ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু উপস্থিত ছিলেন। সভা পরিচালনা করেন প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানি।

বৈঠক শেষে রাতে সাংবাদিকদের মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমাদের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের ধারাবাহিক বৈঠকের আজকে পঞ্চম দিন ছিল। প্রায় ছয় ঘণ্টা আলোচনা হয়েছে। বর্তমানে অনির্বাচিত সরকার বাংলাদেশের রাজনীতি, অর্থনীতি ও মানুষের আশা-আকাঙ্ক্ষাকে বিনষ্ট করছে। আমাদের নেত্রীকে বন্দি করে রেখেছে। বিএনপির ৩৫ লাখ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা দিয়েছে। এর থেকে মুক্তি পেতে আমরা আমাদের নেতাদের সঙ্গে ঘরোয়াভাবে আলোচনা করছি। রাজনীতি ও সাংগঠনিক বিষয় নিয়ে আাালোচনা করছি। যখন এই আলোচনা শেষ হবে, তখন আপনারা জানতে পারবেন আমরা কী আলোচনা করেছি।’



সাতদিনের সেরা