kalerkantho

মঙ্গলবার । ৩ কার্তিক ১৪২৮। ১৯ অক্টোবর ২০২১। ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

মানসিক প্রতিবন্ধীকে বলাৎকার

স্কুল শিক্ষার্থীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলায় গ্রেপ্তার দুই ভাই

মানিকগঞ্জ (আঞ্চলিক) ও উল্লাপাড়া (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



মানিকগঞ্জের শিবালয়ে অসহায় এক মানসিক প্রতিবন্ধী কিশোরকে বলাৎকারের অভিযোগে তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় চাঞ্চল্যকর স্কুল শিক্ষার্থীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলার দুই আসামি গ্রেপ্তার হয়েছেন।

শিবালয়ে গ্রেপ্তার তিনজন হলেন উপজেলার তেওতা ইউনিয়নের তেওতা বাছেট গ্রামের মৃত মনছুর শেখের ছেলে হবিবর শেখ (৬৪), বাবুর বাড়ি তেওতার মৃত নিরঞ্জন সরকারের ছেলে নীলকমল সরকার (৩৯) ও ভোলা ফকিরের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৪৫)। প্রথম দুজনকে মঙ্গলবার রাতে ও সাইফুলকে গতকাল বুধবার বিকেলে আটক করা হয়। এ ঘটনায় গতকাল দুপুরে শিবালয় থানার উপপরিদর্শক (এসআই) জাহাঙ্গীর আলম খন্দকার বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। হবিবর ও নীলকমলকে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠনো হয়েছে। মামলায় আরো তিনজনকে আসামি করা হয়েছে।

এলাকাবাসী ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী কিশোরের পরিবার মানুষের সহায়তায় চলে। সে মানসিক প্রতিবন্ধী হওয়ায় রাতের বেলায় তেওতা বাজারে ঘুরে বেড়ায়। এ সুযোগে কয়েক মাসে বিভিন্ন সময় তেওতা জমিদারবাড়ির পরিত্যক্ত ভবন, যমুনা নদীর পারসহ কয়েকটি স্থানে টাকার লোভ দেখিয়ে জোর করে হবিবর, নীলকমল, সাইফুল, কোহিনুর মিয়া, মোশাররফ হোসেন ও স্বপ্ন মিয়া কিশোরটিকে বলাৎকার করেন। গত শনিবার রাতেও চক্রটি তাকে সংঘবদ্ধ বলাৎকার করে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পরিদর্শক (তদন্ত) আশিস কুমার সান্যাল বলেন, ভুক্তভোগীকে ২২ ধারায় জবানবন্দির জন্য আদালতে পাঠানো হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার তাকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে।

উল্লাপাড়া মডেল থানা-পুলিশের বিশেষ অভিযানে মঙ্গলবার রাতে পাবনার চাটমোহর উপজেলার দাঁদ কয়ড়া গ্রাম থেকে দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁরা হলেন উল্লাপাড়া উপজেলার কাশিনাথপুর গ্রামের বদিউজ্জামান মেজরের দুই ছেলে মাসুদ রানা ও আব্দুল মাজেদ। গতকাল আসামিদের সিরাজগঞ্জ আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ। এই তথ্য নিশ্চিত করেন উল্লাপাড়া মডেল থানার ওসি হুমায়ুন কবির।



সাতদিনের সেরা