kalerkantho

বৃহস্পতিবার  । ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ৯ ডিসেম্বর ২০২১। ৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

হাইকোর্টে প্রতিবেদন

৬৮ কারাগারে ১১২ চিকিৎসক দেওয়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশের ৬৮টি কারাগারে চিকিৎসকের ১৪১টি পদের মধ্যে ১১২টি পদে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চে দাখিল করা প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। কারা মহাপরিদর্শক ব্রি. জে. এ কে এম মোস্তফা কামাল পাশার পক্ষে ডেপুটি জেলার মুমিনুল ইসলাম এই প্রতিবেদন জমা দেন। আদালত বাকি ২৯টি শূন্য পদে দ্রুত চিকিৎসক নিয়োগের নির্দেশ দিয়েছেন।

এর আগে ২০১৯ সালের নভেম্বর মাসে প্রতিবেদন দিয়ে জানানো হয়, দেশের ৬৮টি কারাগারে ১৪১টি পদের বিপরীতে মাত্র চিকিৎসক রয়েছেন ১০ জন। ওই প্রতিবেদন দেখে হাইকোর্ট কারাগারগুলোতে চিকিৎসক নিয়োগের নির্দেশ দেন।

গতকাল আদালতে এ বিষয়ে কারা কর্তৃপক্ষের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী শফিকুল ইসলাম। রিটের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী জে আর খান রবিন।

২০১৯ সালে কারাগারে চিকিৎসকের পদ শূন্য থাকা নিয়ে একটি জাতীয় দৈনিকে প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। পরে ওই প্রতিবেদনটি সংযুক্ত করে হাইকোর্টে রিট করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী জে আর খান রবিন। এরপর একই বছরের ২৩ জুন হাইকোর্ট এক আদেশে সারা দেশের সব কারাগারে বন্দিদের ধারণক্ষমতা, বন্দি ও চিকিৎসকের সংখ্যা এবং চিকিৎসকের শূন্য পদের তালিকা দাখিলের নির্দেশ দিয়ে রুল জারি করেন।

পরে ওই বছরের নভেম্বর মাসে এক প্রতিবেদন দিয়ে কারা কর্তৃপক্ষ আদালতকে জানায়, দেশের ৬৮টি কারাগারে ১৪১টি পদের বিপরীতে চিকিৎসক রয়েছেন মাত্র ১০ জন। এরপর ওই প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে হাইকোর্ট কারাগারগুলোতে দ্রুত চিকিৎসক নিয়োগের নির্দেশ দেন। এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার ফের শূন্য পদে চিকিৎসক নিয়োগের বিষয়ে প্রতিবেদন দাখিল করে কারা কর্তৃপক্ষ।



সাতদিনের সেরা