kalerkantho

মঙ্গলবার । ৩ কার্তিক ১৪২৮। ১৯ অক্টোবর ২০২১। ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

শিশুর কান্নার শব্দ পেয়ে মিলল মায়ের রক্তাক্ত লাশ

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ   

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বাড়ির অদূরে নির্জন হাওরের পাশে অঝোরে কান্না করছে এক শিশু। শব্দ পেয়ে স্থানীয়রা গিয়ে দেখতে পায়, ক্ষতবিক্ষত মায়ের লাশের পাশে শিশুটি মা মা বলে কাঁদছে। ঘটনার পর থেকেই লাপাত্তা হয়ে যায় শিশুটির বাবা। গতকাল শনিবার সন্ধ্যার পর ঘটনাটি ঘটে ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার গাংগাইল ইউনিয়নের সুরাশ্রম এলাকার শ্রীরামপুর গ্রামে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্র জানায়, কেন্দুয়া উপজেলা লাগোয়া গ্রামটির অবস্থান। মৃত ইয়াসমিন (৩২) কেন্দুয়া উপজেলার পাইকুড়া ইউনিয়নের সোহাগপুর গ্রামের মো. সিরাজের মেয়ে। আট-দশ বছর আগে নান্দাইলের শ্রীরামপুর গ্রামের হাদিস মিয়ার ছেলে সাদ্দাম হোসেনের (৪০) সঙ্গে ওই নারীর বিয়ে হয়েছিল। ওই দম্পতির দুটি সন্তান আছে। বিয়ের পর থেকেই বিভিন্ন বিষয় নিয়ে দুজনের মধ্যে কলহ চলছিল। এ নিয়ে মামলাও চলছিল। দুই পরিবারের সমাঝোতায় দুই দিন আগে স্বামীর বাড়িতে ফেরত আসেন ইয়াসমিন।

ইউপি সদস্য আমিনুল ইসলাম জানান, গাংগাইল ফিশারি মোড় থেকে একটি সড়ক কেন্দুয়া উপজেলার পাইকুড়া বাজারে গিয়ে মিলেছে। সেই সড়কের স্থানীয় মদনপুর-যুগের হাওর নামক স্থানে অন্ধকার ও নির্জন জায়গা থেকে এক শিশুর কান্নার আওয়াজ ভেসে আসছিল। কান্নার আওয়াজের উৎস খুঁজতে আশপাশ থেকে লোকজন ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। তারা সেখানে গিয়ে দেখতে পায়, এক নারীর ক্ষতবিক্ষত দেহ পড়ে রয়েছে, আর লাশের পাশে বসে তিন বছর বয়সী কন্যাশিশু ফাতেমা অনবরত মা মা বলে কান্না করছে। খবর পেয়ে নান্দাইল মডেল থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নারীর লাশ উদ্ধার করে।



সাতদিনের সেরা