kalerkantho

রবিবার । ১ কার্তিক ১৪২৮। ১৭ অক্টোবর ২০২১। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

দেড় বছর পর বিদেশ সফরে প্রধানমন্ত্রী

জাতিসংঘে বক্তৃতায় জানাবেন স্বাস্থ্য খাতের সাফল্য

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



জাতিসংঘে বক্তৃতায় জানাবেন স্বাস্থ্য খাতের সাফল্য

মহামারির নতুন বাস্তবতায় প্রায় দেড় বছর পর আজ শুক্রবার বিদেশ সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে যোগ দেওয়ার পাশাপাশি তিনি ওয়াশিংটন ডিসিতেও সরকারি সফর করবেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন গতকাল জানান, ২১ সেপ্টেম্বর থেকে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৬তম অধিবেশনের উচ্চ পর্যায়ের বিতর্ক পর্ব শুরু হবে। এই অধিবেশনে যোগ দিতে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল আগামী রবিবার নিউ ইয়র্কে পৌঁছবে। কভিড বাস্তবতায় এবারের বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল খুব ছোট আকারে গঠন করা হয়েছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হবেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, আগামী ২০ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী ও জাতিসংঘ মহাসচিবের আমন্ত্রণে জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে অংশ নেবেন। সেখানে প্রধানমন্ত্রী জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বাংলাদেশ সরকারের বিভিন্ন কার্যক্রম তুলে ধরবেন এবং জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুঁকি নিরসনে সম্মিলিত বৈশ্বিক উদ্যোগের আহবান জানাবেন। সেদিনই বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘ সদর দপ্তর চত্বরে বৃক্ষরোপণ করবেন। 

পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, আগামী ২২ সেপ্টেম্বর শেখ হাসিনা যুক্তরাষ্ট্র আয়োজিত কভিড মহামারিবিষয়ক উচ্চ পর্যায়ের সভায় বক্তব্য দেবেন। সেদিনই রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশ আয়োজিত একটি উচ্চ পর্যায়ের আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী অংশ নেবেন। পরদিন ২৩ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘের খাদ্যবিষয়ক উচ্চ পর্যায়ের সভায় যোগ দেবেন। সেদিনই ‘ইউএন কমন এজেন্ডা : অ্যাকশন টু অ্যাচিভ ইকুয়ালিটি অ্যান্ড ইনক্লুশন’ একটি উচ্চ পর্যায়ের সাইড ইভেন্টে প্রধানমন্ত্রী বক্তব্য দেবেন। 

ড. মোমেন বলেন, আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের সাধারণ বিতর্ক পর্বে বাংলাদেশের পক্ষে বক্তব্য দেওয়ার কথা রয়েছে। প্রতিবারের মতো এবারও তিনি বাংলায় বক্তব্য দেবেন। তিনি বাংলাদেশের অভাবনীয় উন্নয়ন অগ্রযাত্রা, অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক উন্নয়ন, স্বাস্থ্য খাতে সাফল্য তুলে ধরবেন। এর পাশাপাশি বিশ্বশান্তি, নিরাপদ অভিবাসন, করোনা টিকার ন্যায্যতাভিত্তিক বণ্টন, বৃহৎ পরিসরে করোনা টিকা উৎপাদনের লক্ষ্যে পেটেন্টসহ মেধাস্বত্ব উন্মুক্তকরণ, ফিলিস্তিনি ও বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত মিয়ানমার নাগরিক সংকট, জলবায়ু ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা সম্পর্কিত  বিষয়গুলো তাঁর বক্তব্যে উঠে আসবে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাংবাদিকদের জানান, প্রতিবছরের মতো এবারও যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী বাংলাদেশিরা প্রধানমন্ত্রীর সম্মানে একটি অভ্যর্থনা অনুষ্ঠান আয়োজন করবেন। করোনার পরিপ্রেক্ষিতে ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে এ সভা অনুষ্ঠিত হবে। এ ছাড়া প্রধানমন্ত্রী প্রতিবারের মতো বেশ কয়েকটি দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে অংশ নেবেন।  মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম মোহামেদ সলিহ, ভিয়েতনামের প্রেসিডেন্ট নুয়েন হুয়ান ফুক, বার্বাডোজের প্রধানমন্ত্রী মিয়া আমোর মোটলি, জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস, ইউরোপিয়ান কাউন্সিলের সভাপতি চার্লস মাইকেলসহ বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধান বা সরকারপ্রধানের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট  বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করবেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, প্রধানমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রের ব্যবসায়ী সম্প্রদায়ের আয়োজনে একটি গোলটেবিল বৈঠকে অংশ নেবেন। ওই বৈঠকে বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগ পরিবেশ ও সুযোগ-সুবিধার বিষয়গুলো তুলে ধরবেন।



সাতদিনের সেরা