kalerkantho

শনিবার । ৮ মাঘ ১৪২৮। ২২ জানুয়ারি ২০২২। ১৮ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

এক দফা আন্দোলনের বিকল্প নেই : বিএনপি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



দেশজুড়ে নেতাকর্মীরা মামলা-হামলার শিকার। এমন প্রেক্ষাপটে খালেদা জিয়ার মুক্তি এবং সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য নিরপেক্ষ নির্দলীয় সরকার ও নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠনের বিকল্প নেই। গতকাল বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব-সাংগঠনিক সম্পাদক-সহসম্পাদকদের নিয়ে শীর্ষ নেতৃবৃন্দের বৈঠকে এমন আলোচনাই উঠে এসেছে। গত রাতে বৈঠক শেষে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, দাবি আদায়ে বিএনপি এক দফা আন্দোলনের দিকেই যাবে।

বিজ্ঞাপন

গতকাল বুধবার গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে বিকেল ৪টায় শুরু হয়ে বৈঠক চলে প্রায় সাত ঘণ্টা।

বৈঠক শেষে গুলশানের কার্যালয়ে বাইরে সাংবাদিকদের বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘আমাদের এই বৈঠকে দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও দলের সাংগঠনিক বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। আমরা আগামীকাল (আজ) আরেকটি বৈঠক করব। পরে অন্যদের সঙ্গে আমরা বৈঠকে বসব। ’

বৈঠকে নেতারা বলেন, ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার ২০১৪ ও ২০১৮ সালের মতো আবারও একতরফা নির্বাচন করার কৌশল নিচ্ছে। এ অবস্থায় নিজেদের অস্তিত্ব ধরে রাখতে একদিকে সংগঠনকে শক্তিশালী করতে হবে, অন্যদিকে সরকার পতনের আন্দোলনে যেতে হবে। বৈঠকে চেয়ারপারসনের মুক্তি, দল পুনর্গঠন, জোটের রাজনীতি, নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা-হামলাসহ বিভিন্ন ইস্যুও আলোচিত হয়।

বৈঠকে উপস্থিত নেতাদের বেশির ভাগই আন্দোলনে যাওয়ার পক্ষে মত দেন। অনেক নেতা বিএনপির অতীত কার্যক্রম পর্যালোচনা করে নতুনভাবে পথচলার পরামর্শ দিয়েছেন। আবার অনেকে নিজ এলাকার কমিটি গঠনে অনিয়মের চিত্র তুলে ধরেছেন। আন্দোলনে যাওয়ার যৌক্তিকতার পাশাপাশি দল ও সংগঠনের নানা অসংগতি তুলে ধরেন। বিএনপির বিভিন্ন অঙ্গসংগঠন বছরের পর বছর মেয়াদোত্তীর্ণ অবস্থায় রয়েছে, সারা দেশে সাংগঠনিক ইউনিট কমিটি গঠন প্রক্রিয়ায়াও ধীরগতিতে চলছে। এভাবে দলকে শক্তিশালী করা সম্ভব নয় বলে নেতারা জানান। অনেক নেতা কমিটি গঠনে অনৈতিক কার্যকলাপের বিষয়েও অভিযোগ করেন।

এর মধ্যে একজন যুগ্ম মহাসচিব তাঁর বক্তব্যে বলেন, নব্বইয়ের গণ-অভ্যুত্থান নিয়ে অনেকে অনেক কথা বলেন। কিন্তু ওই সময়ের প্রেক্ষাপট আর এখনকার প্রেক্ষাপট ভিন্ন। তখন ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা ভবিষ্যতে এমপি, মন্ত্রী হওয়ার জন্য রাজপথে আন্দোলন করেননি। এখনকার একজন থানা পর্যায়ের ছাত্রনেতাও এমপি হওয়ার স্বপ্ন দেখেন। এমন আদর্শ ত্যাগ না করলে আন্দোলন সফল হবে না। সবাইকে দেশের জন্য, গণতন্ত্রের জন্য, খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে। এ সময় প্রধান নির্বাচন কমিশনারের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপতির কাছে ৪২ বিশিষ্ট নাগরিকের দেওয়া চিঠির প্রসঙ্গ উত্থাপন করে তিনি বলেন, বিএনপির উচিত তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করা।



সাতদিনের সেরা