kalerkantho

রবিবার । ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২৮ নভেম্বর ২০২১। ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

সংক্ষিপ্ত

চলতি বর্ষার পর ভোগান্তির অবসান

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর ও টঙ্গী প্রতিনিধি   

৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চলতি বর্ষার পর ভোগান্তির অবসান

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের গতকাল শুক্রবার গাজীপুরের টঙ্গীতে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে নির্মাণাধীন বিআরটি প্রকল্প পরিদর্শন করেন। এ সময় তিনি বলেন, এই প্রকল্পটি জনগণের জন্য অনেক বিড়ম্বনা ও ভোগান্তির কারণ হয়েছে। তিনি আশা প্রকাশ করেন, এটাই শেষ বর্ষা। তাই এই বর্ষাকাল শেষ হলেই জনগণের ভোগান্তির অবসান হবে। মন্ত্রী এ সময় টঙ্গীর চেরাগআলী মার্কেট ও আশপাশের এলাকা পরিদর্শন করেন। তাঁর সঙ্গে ছিলেন সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সচিব নজরুল ইসলাম, প্রধান প্রকৌশলী সবুর খান, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী সবুজ উদ্দিন খান ও প্রকল্প পরিচালক এ এস এম ইলিয়াস শাহ। সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘যেকোনো নির্মাণকাজের যন্ত্রণা আছেই। সাময়িক যন্ত্রণাকে মেনে নেওয়ার জন্য আমি সবাইকে আহবান  জানাচ্ছি। বিআরটি যখন চালু হবে তখন প্রতিদিন গাজীপুর থেকে প্রতি ঘণ্টায় ২০ হাজার যাত্রী চলাচল করতে পারবে।’ প্রকল্পের নকশায় কোনো ভুল নেই জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিআরটি প্রকল্পের কাজ শেষ হলে ভুল বলে কিছুই পাওয়া যাবে না। মেয়র হানিফ উড়াল সেতুর ডিজাইনেও ভুল থাকার কথা বলা হয়েছিল। পরে তা চালু হওয়ার পর সে রকম কিছুই পাওয়া যায়নি। আর এডিবি ভুল ডিজাইনের কোনো প্রকল্পে বিনিয়োগ করে না। তাদের সঙ্গে বহুবার আমাদের মিটিং হয়েছে।’ সেতুমন্ত্রী জানান, এরই মধ্যে এই প্রকল্পের ৬৩.২৭ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে।



সাতদিনের সেরা