kalerkantho

শনিবার । ৩১ আশ্বিন ১৪২৮। ১৬ অক্টোবর ২০২১। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

কালের কণ্ঠ কর্মীকে সন্দেহ করে পাঠানো হলো জেলে!

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি   

২৭ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চেক জালিয়াতি ও প্রতারণার মামলায় সন্দেহভাজন আসামি হিসেবে সাতক্ষীরায় কালের কণ্ঠ’র বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি শেখ আমিনুর রশিদ সুজনকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। গত মঙ্গলবার সাতক্ষীরা পুলিশ লাইনের প্রধান ফটকের সামনের সড়ক থেকে সন্দেহবশত তাঁকে গ্রেপ্তার করে ডিবি পুলিশ। আগামী মঙ্গলবার তাঁর জামিন শুনানি হবে।

সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত প্রশাসনিক কর্মকর্তা খলিলুর রহমান জানান, গত বছর সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের অফিস থেকে সোনালী ব্যাংক সাতক্ষীরা শাখার চেক বইয়ের তিনটি পাতা হারিয়ে যায়। বিষয়টি ২০২০ সালের ২৭ আগস্ট তাঁদের নজরে আসে। এর মধ্যে হারিয়ে যাওয়া চেকের পাতা ব্যবহার করে কে বা কারা ছয় লাখ টাকা উত্তোলন করে। এ ঘটনায় তিনি ওই বছরের ২৯ আগস্ট কারো নাম উল্লেখ না করে সদর থানায় একটি প্রতারণার মামলা করেন। পরে মামলাটির তদন্তভার গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক জহিরুল ইসলামের ওপর ন্যস্ত হয়। গত বুধবার কালের কণ্ঠ’র বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি শেখ আমিনুর রশিদ সুজনকে সন্দেহভাজন হিসেবে ডিবি পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে বলে তিনি শুনেছেন। এক প্রশ্নের জবাবে খলিলুর রহমান বলেন, ‘সুজনকে ভালো মানুষ হিসেবেই জানি। সঠিক তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত দোষীকে চিহ্নিত করার জন্য পুলিশের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি।’



সাতদিনের সেরা