kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮। ২ ডিসেম্বর ২০২১। ২৬ রবিউস সানি ১৪৪৩

পরিস্থিতি দেখে সিদ্ধান্ত নেবে বাংলাদেশ

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

১৭ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কাছের প্রতিবেশী। ঐতিহাসিক সম্পর্কও আছে। আফগানিস্তানে ক্ষমতায় যে-ই আসুক না কেন তার সঙ্গেই কাজ করতে হবে বাংলাদেশকে। এমন বাস্তবতায় অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে আফগানিস্তান পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে বাংলাদেশ। একই সঙ্গে বাংলাদেশের প্রত্যাশা, আফগানিস্তানের শান্তি ও স্থিতিশীলতা। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহিরয়ার আলম গতকাল সোমবার ঢাকায় সাংবাদিকদের বলেন, আফগানিস্তানের পরিস্থিতি নিয়ে বাংলাদেশে ভয়ের কিছু নেই।

তিনি বলেন, আফগানিস্তানে আগের মতো কালো অধ্যায়ের সূচনা হবে না বলে প্রত্যাশা বাংলাদেশের। তালেবানদের পরিবর্তন হয়েছে—কাতার বাংলাদেশকে এমনটি আশ্বস্ত করেছে। তবে বর্তমান পরিস্থিতিতে বাংলাদেশিদের আফগানিস্তান সফরে না যেতেও তিনি অনুরোধ করেছেন।

তালেবানের সঙ্গে যোগ দিতে তরুণদের আফগানিস্তানে যাওয়ার চেষ্টার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনী সতর্ক অবস্থানে থাকবে। জঙ্গিবাদ দমনে আমাদের সক্ষমতা রয়েছে।’

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেছেন, আফগানিস্তানের বর্তমান পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ চায় যে আফগান জনগণের মতামত প্রতিফলিত হোক। আফগানিস্তানে স্থিতিশীল যেকোনো সরকারের সঙ্গে কাজ করবে বাংলাদেশ। তবে বাংলাদেশ আফগানিস্তানে অন্য কোনো দেশের উপস্থিতি চায় না।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘‘আফগানিস্তানের সংবিধান অনুযায়ী চার বা পাঁচ বছরের সরকারের ‘ম্যান্ডেট’ নিয়ে কেউ না আসা পর্যন্ত আমরা তাদের স্বাগত জানাতে পারি না। এটা ঠিকও হবে না।’’

আফগানিস্তানে থাকা বাংলাদেশিদের প্রসঙ্গে শাহিরয়ার আলম বলেন, ‘আফগানিস্তান থেকে তিন বাংলাদেশিকে নিরাপদ অবস্থানে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। এ ছাড়া আরো সাত বাংলাদেশি নাগরিককে নিরাপদে নেওয়ার প্রক্রিয়া চলমান। এর চেয়ে বেশি তথ্য আমরা এখন প্রকাশ করতে চাচ্ছি না।’

এদিকে ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গতকাল আফগানিস্তান পরিস্থিতি নিয়ে একটি বিবৃতি দিয়েছে। সেখানে কোথাও ‘তালেবান’ শব্দ উল্লেখ করা হয়নি। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, আফগানিস্তানে দ্রুত উদ্ভূত পরিস্থিতির প্রভাব এই অঞ্চল ও এর বাইরে পড়তে পারে বলে বাংলাদেশ বিশ্বাস করে।

১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশের প্রতি আফগান জনগণ ও সরকারের সমর্থন, ঐতিহাসিক ও সাংস্কৃতিক যোগসূত্র এবং দক্ষিণ এশিয়া ও সার্কের আওতায় সম্পর্কের কথা উল্লেখ করেছে বাংলাদেশ। বিবৃতিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, টেকসই উন্নয়নের জন্য এই অঞ্চলকে একসঙ্গে সমৃদ্ধি ও উন্নতি করতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই দূরদর্শী নীতি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে আফগানিস্তানের সঙ্গে কাজ করার ব্যাপারে বাংলাদেশ অঙ্গীকারবদ্ধ।



সাতদিনের সেরা