kalerkantho

রবিবার । ১১ আশ্বিন ১৪২৮। ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৮ সফর ১৪৪৩

জমি নিয়ে বিরোধ

জামিনে থাকা আসামিকে খুন করলেন বাদীপক্ষ!

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ   

৫ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জমি নিয়ে বিরোধের জেরে দুই পক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনায় এক পক্ষ অন্য পক্ষের বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টার মামলা করে ১২ জনকে অভিযুক্ত করে। এর প্রায় তিন মাস পর জামিনে থাকা দুই নম্বর আসামিকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে বাদীপক্ষের লোকজনের বিরুদ্ধে। ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলার রসুলপুর গ্রামে গতকাল বুধবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়াধাওয়িতে উভয় পক্ষের পাঁচজন আহত হন।

খবর পেয়ে থানা থেকে বিপুলসংখ্যক পুলিশ গিয়ে দুপুর আড়াইটার দিকে নিহতের বাড়ির উঠান থেকে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। নিহত সুমন আকন্দ (৩০) উত্তর রসুলপুর গ্রামের মো. আজিজ আকন্দের ছেলে। হত্যার ঘটনায় কিশোরগঞ্জের একটি বেসরকারি হাসপাতাল থেকে চিকিত্সাধীন অবস্থায় তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। আটক তিনজন হলেন মাসুম, আজিজুল ও আবদুর রাজ্জাক।

আজিজ আকন্দ (৭৫) বলেন, তাঁর পৈতৃক সম্পত্তি এখনো ভাগাভাগি হয়নি। কিন্তু তাঁর মৃত ছোট ভাই হামিদ উদ্দিন আকন্দের ছেলে মাসুদ বাইরে থেকে ভাড়াটে লোকজন এনে জোর করে জমি দখলের চেষ্টা করছেন। গতকাল সকালে প্রতিপক্ষরা জোট বেঁধে দেশি অস্ত্র নিয়ে জমি দখল করতে যান। খবর পেয়ে তাঁর ছেলে সুমন আকন্দ জমিতে গিয়ে তাঁদের বাধা দেন। সেখানেই তাঁকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

আজিজ আকন্দের বড় ছেলে আবুল হোসেন আকন্দ লিটন জানান, স্থানীয় সমাজপতিদের অবহেলা ও পক্ষপাতিত্বের কারণেই প্রতিপক্ষরা সাহস পেয়ে তাঁদের জমি দখলে নিতে যান। বাধা দিলে গত মে মাসে তাঁদের ১২ জনকে অভিযুক্ত করে থানায় হত্যাচেষ্টা মামলা করেন মাসুদ। মামলায় সবাই জামিনে আছেন। এর মধ্যে তাঁর সহজ-সরল ভাইকে প্রকাশ্যে খুন করেন মাসুদ ও তাঁর চাচাতোভাই মাসুম।



সাতদিনের সেরা