kalerkantho

শুক্রবার । ৭ মাঘ ১৪২৮। ২১ জানুয়ারি ২০২২। ১৭ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

আরো ১৯৬ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গত বছরের জুলাইয়ের চেয়ে এ বছর জুলাইয়ে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে প্রায় ৯৯ গুণ। গত বছর জুলাইয়ে ডেঙ্গু রোগী ছিল মাত্র ২৩ জন। এ বছর দুই হাজার ২৮৬ জন। এ ছাড়া গতকাল সকাল থেকে পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে আরো ১৯৬ জন ভর্তি হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এর মধ্যে ঢাকায় রয়েছে ১৯৪ এবং ঢাকার বাইরে দুইজন। গতকাল শনিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোলরুমের ডেঙ্গুবিষয়ক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিবৃতিতে আরো জানানো হয়, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে মোট ভর্তি হওয়া ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ৭৭৭। এর মধ্যে ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি ৭৪৭ জন। ঢাকার বাইরের হাসপাতালে ৩০ জন। দেশে চলতি বছরে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে দুই হাজার ৬৫৮ জনে। এর মধ্যে সুস্থ হয়ে ছাড়পত্র পেয়েছে এক হাজার ৭৭৮ জন। এ ছাড়া সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নির্ণয় ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে (আইইডিসিআর) আরো চারজনের মৃত্যুর তথ্য পর্যালোচনার জন্য পাঠানো হয়েছে।

এদিকে এডিস মশার লার্ভা নিয়ন্ত্রণে গতকাল ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) সাতটি ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়ে মোট ১৩টি ভবনকে এক লাখ ৬৬ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহফুজুল আলম মাসুম, মোহাম্মদ আলমগীর হোসেন, তৌহিদুজ্জামান পাভেল, মুহাম্মদ হাসনাত মোর্শেদ ভূঁইয়া, শাহীন রেজা, কাজী হাফিজুল আমিন ও বিকাশ বিশ্বাস এসব ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। ২১৪টি নির্মাণাধীন ভবন, বাসাবাড়ি ও প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালানো হয়। এ সময় এডিস মশার লার্ভা প্রজনন উপযোগী পরিবেশ পাওয়ায় ১১টি বাসা ও নির্মাণাধীন ভবনকে সতর্ক করা হয়।

অন্যদিকে, গতকাল এডিস মশা, ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়ার বিস্তার রোধে পরিচালিত মোবাইল কোর্টে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি) ৩৫টি মামলায় ছয় লাখ ৭৬ হাজার ৩০০ টাকা জরিমানা আদায় করেছে। এ সময় মাইকিং করে জনসচেতনতামূলক বার্তা প্রচার করা হয়।



সাতদিনের সেরা