kalerkantho

সোমবার । ২ কার্তিক ১৪২৮। ১৮ অক্টোবর ২০২১। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

শেকৃবির সহকারী প্রক্টরের বিরুদ্ধে এক আনসারকে লাঞ্ছনার অভিযোগ

শেকৃবি প্রতিনিধি   

২৯ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শেকৃবি) সহকারী প্রক্টর রাকিবুর রহমান সেজানের বিরুদ্ধে মিজানুর রহমান নামে এক আনসার সদস্যকে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ উঠেছে।

ভুক্তভোগীর অভিযোগ, গত মঙ্গলবার রাতে অফিসার্স ক্লাবের পাশে যাওয়ার সময় তাঁর পা ভেঙে দেওয়ার হুমকি দেন সহকারী প্রক্টর। বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই ক্লাবে বহিরাগতদের নিয়ে মাদক ও জুয়ার আসর বসে বলে বিভিন্ন সময় অনেকে সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন।

মিজানুর বলেন, “আমি অফিসার্স ক্লাবের পাশের দোকানে গেছিলাম বিস্কুট আনতে। এ সময় আমি সেখানে কেন গেলাম, এ জন্য রাকিব স্যার আমার পা ভেঙে দিতে উদ্যত হন। স্যার আমাকে বলেন, ‘তুই এখানে কি করিস? আর যদি এখানে ক্লাবের আশপাশে দেখি তো তোর পা ভেঙে দিব।”

জানা যায়, গতকাল বুধবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের আনসার সদস্যরা রেজিস্ট্রারের কাছে এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তসাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবিতে লিখিত অভিযোগ করেন।

রেজিস্ট্রার শেখ রেজাউল করিম জানান, এ রকম একটা অভিযোগ এসেছে। ভিসি স্যারকে অবহিত করা হবে।

নিরাপত্তাকর্মীদের লিখিত অভিযোগপত্রে বলা হয়, ক্লাবে বহিরাগতদের নিয়ে নিয়মিত জুয়ার আসর বসে। সেখানে মাদকের আসর বসানোর অভিযোগও রয়েছে।

আনসার সদস্যরা বলেন, ‘আমাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার নতুন না। এর আগেও অনেকবার আমাদের সঙ্গে এমন তুই-তোকারি করা হয়েছে। কখনো কখনো মারতে এসেছে।’

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা জানান, ওই অফিসার্স ক্লাবে প্রায়ই জুয়া ও মাদকের আসর বসে। রাকিবুর রহমান শিক্ষক হলেও অফিসার্স ক্লাবে তাঁর নিয়মিত যাতায়াত। তিনিসহ আরো কয়েকজন শিক্ষক ওই ক্লাবে নিয়মিত আড্ডা দেন।

সহকারী প্রক্টর রাকিবুর রহমান বলেন, ‘আমি এসব অভিযোগের বিষয়ে কিছুই জানি না। আপনারা প্রক্টরের কাছে কল দিয়ে জেনে নিতে পারেন।’

প্রক্টর ড. হারুন-উর-রশীদ বলেন, ‘এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পাইনি। মৌখিক অভিযোগ পেয়েছি। ভিসি স্যারের সঙ্গে বসে আমরা এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিব।’



সাতদিনের সেরা