kalerkantho

রবিবার । ১১ আশ্বিন ১৪২৮। ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৮ সফর ১৪৪৩

ছিনতাইয়ে বাধা দেওয়ায় দোকানিকে হত্যা

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, গাজীপুর   

২৯ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গাজীপুরের শ্রীপুরে প্রকাশ্য দিনদুপুরে একটি দোকান থেকে টাকা ছিনতাইকালে বাধা দেওয়ায় দোকানিকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়েছে। গতকাল বুধবার সকাল পৌনে ১১টার দিকে উপজেলার বেড়াইদেরচালা লিচুবাগান এলাকায় ঘটনাটি ঘটে।

নিহত ব্যক্তির নাম মোখলেছুর রহমান (৩২)। তিনি ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলার জামিরাপাড়া গ্রামের আফাজ উদ্দিনের ছেলে। শ্রীপুরের বেড়াইদেরচালা গ্রামে জমি কিনে সেখানেই দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করছিলেন তিনি। একই সঙ্গে পাশের লিচুবাগান এলাকায় মোবাইল রিচার্জ ও মোবাইলের মাধ্যমে অর্থ লেনদেনের ব্যবসা করতেন।

হত্যাকাণ্ডের পর টের পেয়ে আশপাশের মানুষজন হত্যায় অভিযুক্ত মো. রুবেলকে (৩০) আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। রুবেল ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার লেবুবুনিয়া বাজার নৈহাটি গ্রামের শামসুল হকের ছেলে। শ্রীপুর পৌরসভার কাউন্সিলর মো. হাবিবুল্লাহ জানান, চলমান লকডাউনের কারণে দোকানপাট প্রায় সবই বন্ধ। এরই মধ্যে শুধু ওষুধের দোকানসহ মোবাইল রিচার্জের দোকান খোলা ছিল। তবে ওই সময় সেখানে তেমন লোকজন ছিল না।

ওই এলাকার মুদি ব্যবসায়ী কামরুল ইসলাম জানান, সকাল প্রায় পৌনে ১১টার দিকে দোকান থেকে বাইরে বেরিয়ে মোবাইল ফোনে কথা বলছিলেন মোখলেছুর। হঠাৎ দোকানের ভেতর ঢুকে পড়ে রুবেল। ভেতরের ক্যাশ বাক্স থেকে নগদ টাকা ও টেবিলে রাখা একটি মোবাইল ফোনসেট পকেটে পুরে ফেলে। তা দেখে ছুটে গিয়ে মোখলেছুর তাকে (রুবেল) আটকের চেষ্টা করেন। ওই সময় দুজনের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়। এক পর্যায়ে রুবেল পকেট থেকে ছুরি বের করে মোখলেছুরের গলায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে। মোখলেছুরের চিৎকারে আশপাশের লোকজন টের পেয়ে সেখানে ছুটে গেলে রুবেল রক্তাক্ত ছুরি হাতে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা চালায়। পরে লোকজন তাকে আটক করে। ঘটনার পরপরই মোখলেছুর মারা যান।



সাতদিনের সেরা