kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৫ কার্তিক ১৪২৮। ২১ অক্টোবর ২০২১। ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

প্রতিবন্ধী কিশোরী ও মাদরাসাছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৭ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশের কুমিল্লা ও নওগাঁয় এক প্রতিবন্ধী কিশোরী ও এক মাদরাসাছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এসব ঘটনায় পৃথক থানায় দুই মামলা করেছে ভুক্তভোগীদের পরিবার। গ্রেপ্তার হয়েছেন এক আসামি।

চান্দিনা (কুমিল্লা) প্রতিনিধি জানান, কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলায় এক মাদরাসাপড়ুয়া ছাত্রীকে (১৩) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে আবুল বাশার (৫০) নামের এক মসজিদের ইমামের বিরুদ্ধে। এই ঘটনায় গতকাল সোমবার চান্দিনা থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেছেন ভুক্তভোগীর বাবা।

আবুল বাশার উপজেলার বাতাঘাসী ইউনিয়নের শব্দলপুর গ্রামের মুন্সিবাড়ির মৃত মোতালেব মুন্সির ছেলে। তিনি সুহিলপুর ইউনিয়নের তীরচর নয়াবাড়ি মসজিদের ইমাম।

জানা যায়, ওই মাদরাসাছাত্রী আবুল বাশারের কাছে পড়ত। গত বৃহস্পতিবার তিনি ভুক্তভোগীকে অজ্ঞাতপরিচয় নিয়ে দুই দিন আটকে রেখে ধর্ষণ করেন। ভুক্তভোগী অসুস্থ হয়ে পড়লে তার ভাইকে খবর দেন আবুল বাশার। পরে ভাইয়ের কাছে ভুক্তভোগীকে দিয়ে তিনি পালিয়ে যান। অসুস্থ অবস্থায় ওই ছাত্রীকে কুমিল্লার ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে তাকে ভর্তি করা হয়।

মান্দা (নওগাঁ) প্রতিনিধি জানান, নওগাঁর মান্দায় বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী এক কিশোরীকে (১৪) ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত আব্দুর রশিদকে (৩২) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রশিদ উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের পশ্চিম দুর্গাপুর গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে। তিনি পেশায় একজন ভ্যানচালক। স্থানীয় লোকজন জানায়, ওই কিশোরী রবিবার বিকেলে বাড়ির পাশের মাঠে ভেড়া চরাতে যায়। তাকে একা পেয়ে রশিদ একটি পাটক্ষেতে নিয়ে তাঁকে ধর্ষণ করেন। এ সময় ভুক্তভোগীর চিৎকারে লোকজন এগিয়ে এলে রশিদ পালিয়ে যান।



সাতদিনের সেরা