kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৫ কার্তিক ১৪২৮। ২১ অক্টোবর ২০২১। ১৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

চট্টগ্রামে নারীদের আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার বাড়ছে

নূপুর দেব, চট্টগ্রাম   

২৭ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



চট্টগ্রামে নারীদের আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার বাড়ছে

চট্টগ্রামের করোনাভাইরাস পরিস্থিতি গত রবিবার পর্যন্ত গত তিন মাসে ভিন্ন দিকে মোড় নিয়েছে। আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, আগের তুলনায় ২৫ এপ্রিল থেকে গত ২৫ জুলাই পর্যন্ত আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যায় নারীরা বেশি। সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্য বিশ্লেষণ করে এ চিত্র পাওয়া গেছে।

গত ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত চট্টগ্রামে মোট করোনা শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৪৮ হাজার ৮৮৭। এর মধ্যে পুরুষ ৩৩ হাজার ১২৪ ও নারী ১৫ হাজার ৭৬৩ জন। অর্থাৎ পুরুষ রোগী ৬৭.৭৬ শতাংশ এবং নারী রোগী ৩২.২৪ শতাংশ। এ সময়ে মৃত্যুবরণকারী ৪৯৭ জনের মধ্যে পুরুষ ৩৬৫ জন এবং নারী ১৩২ জন। শতাংশের হিসাবে পুরুষ মৃতের হার ৭৩.৪৪ শতাংশ এবং নারীদের হার ২৬.৫৬ শতাংশ। অথচ গত তিন মাসে এই চিত্রটা সম্পূর্ণ বদলে গেছে।

তথ্য অনুসন্ধানে দেখা গেছে, গত তিন মাসে নারীদের মৃত্যুহার ৮.৬৯ শতাংশ বেড়েছে। আক্রান্তের হার বেড়েছে ৩.১৭ শতাংশ। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা বলছেন, টিকা গ্রহণের হার পুরুষের তুলনায় নারীদের কম। সে কারণেই এই প্রবণতা দেখা যাচ্ছে।

তিন মাসের মৃত নারী রোগীদের মধ্যে ৪০ থেকে ষাটোর্ধ্ব বয়সীদের সংখ্যা বেশি। এ সময়ে ৮৬.৪৩ শতাংশ মৃত্যুই ৪০ থেকে ৫০ বছর বয়সী, ৫১ থেকে ৬০ বছর বয়সী ও ষাটোর্ধ্ব। বয়সভিত্তিক সাতটি ক্যাটাগরির মধ্যে এই তিন ক্যাটাগরিই বেশি।

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. সেলিম আকতার চৌধুরী বলেন, ‘পুরুষরা বাহির থেকে সংক্রমিত হয়ে নারীদের সংক্রমিত করছে। নারী আক্রান্তদের মধ্যে বেশির ভাগ নিম্নমধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবারের। এ ছাড়া টিকা না নেওয়াও বড় একটি কারণ।’

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজের মেডিসিন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. সুযত পাল বলেন, ‘গত বছর নারী আক্রান্তের সংখ্যা কম ছিল। ঘরে পুরুষ আক্রান্ত হলে নারীরা বাদ যাচ্ছে না।’

চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের প্রধান সিনিয়র কনসালট্যান্ট ডা. আবদুর রউফ বলেন, ‘রবিবার ১৫৮ শয্যার মধ্যে ১৬২ জন করোনা রোগী ভর্তি আছে। এর মধ্যে ৪০ থেকে ৫০ শতাংশ নারী। আক্রান্ত ব্যক্তিদের মধ্যে ৩০ শতাংশের অবস্থা খারাপ হচ্ছে। এ ছাড়া দেরিতে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের ক্ষেত্রে পরিস্থিতি কঠিন হয়।’

বয়সভিত্তিক বিবেচনায় দেখা গেছে, ৪০ থেকে ষাটোর্ধ্ব বয়সী নারীরা গত ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত  মারা গেছে ৮৫.৬১ শতাংশ, গত ২৫ মে পর্যন্ত ৮৭.১৫ শতাংশ, গত ২৫ জুন ৮৭.৬৮ শতাংশ এবং ২৫ জুলাই পর্যন্ত ৮৫.২৬ শতাংশ।

এখন পর্যন্ত করোনাক্রান্ত হয়ে মোট মৃত্যুবরণকারীর মধ্যে পুরুষ ৫৭৯ ও নারী ৩১৮ জন। মোট শনাক্ত রোগী ৭৬ হাজার ২১১ জন। গতকাল সোমবার পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে করোনায় মৃত্যুবরণ করা ১২ জনের মধ্যে ছয়জন পুরুষ ও ছয়জন নারী।



সাতদিনের সেরা