kalerkantho

রবিবার । ১ কার্তিক ১৪২৮। ১৭ অক্টোবর ২০২১। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

কুষ্টিয়ায় ২৪ ঘণ্টায় ১৯ জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুষ্টিয়া   

৫ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সংক্রমণের হার বাড়ায় ২৫০ শয্যার কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালকে গত মাসে ‘ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতাল’ ঘোষণা করা হয়। দেওয়া হয় কঠোর লকডাউনও। কিন্তু এসব পদক্ষেপের দৃশ্যত সুফল মিলছে না। এই জেলায় করোনায় সংক্রমণ ও মৃত্য বেড়েই চলেছে। গতকাল সকাল ৮টা থেকে পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় এই হাসপাতালে ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে।

তাদের মধ্যে ১৫ জনের করোনা ‘পজিটিভ’ ছিল। উপসর্গ নিয়ে ভর্তি হয়েছিল চারজন। গত ২৪ ঘণ্টায় এই হাসপাতালে ৬০৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এদের মধ্যে করোনা শনাক্ত হয় ১৯৩ জনের। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার প্রায় ৩২ শতাংশ।

গতকাল সরেজমিনে হাসপাতালে গিয়ে দেখা গেছে, শয্যার অভাবে করোনা রোগীরা হাসপাতালের বারান্দা ও ওয়ার্ডের মেঝেতে গাদাগাদি করে চিকিৎসা নিচ্ছে। জনবল ও অক্সিজেন সংকটের এই সময় চিকিৎসক ও নার্সের পাশাপাশি জেলা ছাত্রলীগ ও রোটারি ক্লাবের সদস্যরা রোগীদের দেখভাল করছেন। অক্সিজেনের অভাবে অনেক রোগীর স্বজন হাসপাতালের ভেতরে ছোটাছুটি করছেন। অনেকেই আবার রোগীর পাশে বসে অক্সিজেন সিলিন্ডার পাহারা দিচ্ছেন, যাতে অন্য কেউ নিতে না পারে।

গতকাল সকালে ৮০-৮৫ অক্সিজেন লেভেল নিয়ে হাসপাতালে আসেন করোনা রোগী শহরের আড়ুয়াপাড়ার আল-আমিন। ভর্তির পর শয্যা এবং মেঝে কোথাও ঠাঁই না পেয়ে স্বজনরা ব্যবস্থাপত্র নিয়ে বাড়িতে ফিরে অক্সিজেন দিচ্ছেন। আল-আমিনের মেয়ে মেডিক্যাল শিক্ষার্থী দিবা বলেন, ‘বাবাকে বাসায় চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল। আজ অক্সিজেন লেভেল ৮৫-তে নামায় আমরা হাসপাতালে এনেছিলাম। কিন্তু এখানে যে ভিড়, তাই বাসায় রেখেই চিকিৎসা দেব।’



সাতদিনের সেরা