kalerkantho

শুক্রবার । ৬ কার্তিক ১৪২৮। ২২ অক্টোবর ২০২১। ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

‘জাতীয় সংগীত পুরস্কার’ প্রবর্তনের ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৪ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সাহিত্যে বিশেষ অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কারের মতো সংগীতে বিশেষ অবদানের জন্য ‘জাতীয় সংগীত পুরস্কার’ প্রবর্তন করার ঘোষণা দিয়েছেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ। গতকাল শনিবার বিকেলে গীতিকবি সংঘের প্রথম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে অনলাইনে আয়োজিত আলোচনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ ঘোষণা দেন তিনি।

গীতিকবি সংঘের সভাপতি শহীদ মাহমুদ জঙ্গীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সংস্কৃতিসচিব আবুল মনসুর। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সিঙ্গারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের সভাপতি রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা, সাধারণ সম্পাদক কুমার বিশ্বজিৎ, মিউজিক কম্পোজারস সোসাইটি অব বাংলাদেশের সভাপতি নকীব খান ও সহসভাপতি ফোয়াদ নাসের বাবু। স্বাগত বত্তৃদ্ধতা করেন গীতিকবি সংঘের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসিফ ইকবাল। গীতিকবি সংঘের বিগত এক বছরের কার্যক্রম উপস্থাপন করেন সংগঠনটির আরেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কবির বকুল। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন গীতিকবি সংঘের সাংগঠনিক সম্পাদক জুলফিকার রাসেল।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সংগীতসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের মেধাস্বত্ব সংরক্ষণ, ন্যায্য অধিকার নিশ্চিতকরণ এবং সংগীতের সার্বিক উন্নয়নের লক্ষ্যে এ খাতের তিন সংগঠন গীতিকবি সংঘ, সিঙ্গারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ ও মিউজিক কম্পোজারস সোসাইটি অব বাংলাদেশ সম্প্রতি সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের কাছে যে ১৭ দফা উন্নয়ন প্রস্তাব পেশ করেছে, তার বেশির ভাগই মন্ত্রণালয়ের সক্রিয় বিবেচনাধীন। প্রতিমন্ত্রী বিদেশে সাংস্কৃতিক দল প্রেরণের ক্ষেত্রে সংগীতের বিশেষ দল প্রেরণ, সংগীত বীমা বাস্তবায়ন, নির্মাণাধীন কপিরাইট ভবনে সংগীতের তিন সংগঠনের জন্য অফিস বরাদ্দ, পূর্বাচলে সংগীতের জন্য এক্সক্লুসিভ কনসার্ট ভেন্যুর ব্যবস্থা, সরকারি হাসপাতালে সংগীতসংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের জন্য বিশেষ মর্যাদা ও ফিয়ে স্বাস্থ্যসেবা প্রদানসহ তিন সংগঠনের বিভিন্ন দাবি পূরণের আশ্বাস প্রদান করেন।



সাতদিনের সেরা