kalerkantho

শুক্রবার । ৬ কার্তিক ১৪২৮। ২২ অক্টোবর ২০২১। ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

জামিনে এসেই বাদীপক্ষকে মারধর

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি   

৪ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ধর্ষণ মামলার আসামির মারধরের শিকার হয়েছে ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রীসহ চারজন। গতকাল শনিবার দুপুর ২টায় বগুড়ার ধুনট উপজেলার আনারপুর দহপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ৪ ফেব্রুয়ারি সকালে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এলাকা থেকে সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীকে অপহরণ করা হয়। অপহরণের সঙ্গে জড়িত ছিলেন আনারপুর দহপাড়া গ্রামের আকাশ, শামীম ও মোতালেব নামের তিন বন্ধু। পরে এ ঘটনায় অপহৃত স্কুলছাত্রীর মা বাদী হয়ে ওই তিনজনের বিরুদ্ধে ২০ ফেব্রুয়ারি ধুনট থানায় অপহরণ ও ধর্ষণ মামলা করেন। মামলার পর বগুড়া থেকে প্রধান আসামি আকাশকে (২৭) গ্রেপ্তার করে পুলিশ এবং সেখান থেকে ওই স্কুলছাত্রীকেও উদ্ধার করা হয়। ২০ জুন আদালত থেকে জামিনে মুক্তি পেয়ে আকাশ বাদীপক্ষের সঙ্গে মামলা আপসের চেষ্টা চালান। পরে ২৫ জুন দুই লাখ টাকায় মামলা আপসের সিদ্ধান্ত হয়। এই টাকা লেনদেন নিয়ে গতকাল দুপুরে দুই পক্ষের কথা-কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে আসামি ও তাঁর লোকজনের মারধরে স্কুলছাত্রীসহ তার মা, খালা ও নানি আহত হন। এ ঘটনায় স্কুলছাত্রীর নানি বাদী হয়ে আসামিপক্ষের আব্দুল আজিজসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। ধুনট থানার এসআই ও ধর্ষণ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আব্দুস সালাম বলেন, ‘স্কুলছাত্রীকে অপহরণ ও ধর্ষণ মামলার তিন আসামির বিরুদ্ধে তদন্ত শেষ এবং অভিযোগপত্র তৈরি করা হয়েছে। দু-এক দিনের মধ্যে অভিযোগপত্র আদালতে পাঠানো হবে। মামলা আপস-মীমাংসার বিষয়ে আমার সঙ্গে কোনো কথা হয়নি। তবে মামলার বাদীপক্ষের কাউকে মারপিটের অভিযোগ তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’



সাতদিনের সেরা