kalerkantho

শুক্রবার । ৮ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৩ জুলাই ২০২১। ১২ জিলহজ ১৪৪২

বাসায় ফেরার পথে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৫ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



ঢাকার সাভারে কর্মস্থল থেকে বাসায় ফেরার পথে এক পোশাককর্মীকে জোর করে তুলে নিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভুক্তভোগীর দুই সহকর্মীসহ অভিযুক্ত তিনজনকেই গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। নীলফামারীর সৈয়দপুরে বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক ব্যক্তি গ্রেপ্তার হয়েছেন। সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর এক নারীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে আনসার বাহিনীর এক সদস্যকে গত বুধবার সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এদিন দুপুরে ভুক্তভোগী শাহজাদপুর থানায় মামলা করলে রাতে সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলা হাসপাতাল থেকে আসামিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এ ছাড়া নেত্রকোনার মদনে শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা ও নারীকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে আট মাস ধরে ধর্ষণের অভিযোগে পৃথক দুটি মামলা করা হয়েছে। ঢাকার ধামরাইয়ের শ্রীরামপুরে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে এক কলেজছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। বিয়ের দাবিতে কথিত প্রেমিকের বাড়িতে মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে অবস্থান করছেন এক কলেজছাত্রী। তবে তাঁকে ‘প্রেমিক’ ও তাঁর স্বজনরা শারীরিক নির্যাতন করে গাঢাকা দিয়েছেন। সাভার, শাহজাদপুর ও সৈয়দপুরে অভিযুক্তদের গতকাল বৃহস্পতিবার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

সাভারে গত বুধবার রাতে গ্রেপ্তার তিনজন হলেন সিরাজগঞ্জের বেলকুচি থানার দেলুয়া মধ্যপাড়ার শামীম হোসেনের ছেলে তারেক রহমান (২১), নড়াইলের কালিয়া থানার ফিরোজ কাজীর ছেলে রাব্বি (২০) ও অমিত হাসান (২২)। তাঁরা সাভারের হেমায়েতপুর জয়নাবাড়ী এলাকায় ভাড়ায় থেকে পোশাক কারখানায় চাকরি করেন। অমিত ও তারেক আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। গতকাল ঢাকার দুই সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত তাঁদের জবানবন্দি রেকর্ড করেন। এজাহার সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে কর্মস্থল থেকে বাসায় ফেরার পথে জয়নাবাড়ীতে ওই পোশাককর্মীকে তারেক ও রাব্বি জোর করে তুলে নিয়ে যান একটি বাসায়। সেখানে তাঁদের সঙ্গে যোগ দেন অমিত। পরে তাঁরা তাঁকে ধর্ষণ করেন এবং বিষয়টি কাউকে না বলতে ভয় দেখিয়ে ছেড়ে দেন। তিনি বাসায় ফিরে মাকে বিস্তারিত জানালে মা রাতেই সাভার মডেল থানায় অভিযোগ করেন। সাভার চামড়া শিল্পনগরী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক জাহিদুল ইসলাম জানান, ভুক্তভোগীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করা হয়েছে।

সৈয়দপুর থানায় গতকাল ভুক্তভোগীর (২৫) মা বাদী হয়ে একটি মামলা করেন। পরে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার আবু সালেহ (৫৩) উপজেলার বোতলাগাড়ী মাঝাপাড়ার মৃত মৌলভি তছির উদ্দিনের ছেলে।

মদন উপজেলার হাজরাগাতী গ্রামে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে গতকাল তার মা বাদী হয়ে মদন থানায় মামলা করেন। মামলায় আসামি করা হয়েছে হাজরাগাতীর রাখাল চন্দ্র বর্মণের ছেলে রাজিব বর্মণকে (২১)।

শাহজাদপুরে মঙ্গলবার রাতের ঘটনায় অভিযুক্ত মাহবুব আলম (৪৬) তাড়াশের সরাবাড়ী গ্রামের নওজেশ আলীর ছেলে। তিনি শাহজাদপুর উপজেলার নির্বাহী অফিসারের (ইউএনও) সরকারি বাসভবনের নিরাপত্তায় নিয়োজিত আনসার সদস্য। শাহজাদপুর থানার ওসি শাহিদ মাহমুদ খান বলেন, মাহবুব উপজেলা জনপ্রকৌশল অধিদপ্তরের একটি ভবনের অস্থায়ী ক্যাম্পে ছিলেন। রাত দেড়টার দিকে তিনি পাশের বাগদীপাড়ায় এক নারীর ঘরে ঢুকে তাঁকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। ভুক্তভোগীর চিৎকারে লোকজন ছুটে এলে মাহবুব পালিয়ে যান। রাতেই ভুক্তভোগীর আত্মীয়-স্বজন বিষয়টি ইউএনও ও উপজেলা আনসার-ভিডিপি অফিসারকে জানান।

ধামরাইয়ের শ্রীরামপুরের ঘটনা নিয়ে স্থানীয় মাতবররা বারবার বৈঠক করেও গতকাল বিকেল পর্যন্ত মীমাংসা করতে পারেননি। কলেজছাত্রীর অভিযুক্ত ‘প্রেমিক’ সাইদুর রহমান (২৫) শ্রীরামপুর (বর্তা) গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে ও পোশাককর্মী। ধামরাই থানার ওসি বলেন, ধর্ষণের বিষয়ে অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

(প্রতিবেদনে তথ্য দিয়েছেন নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার এবং প্রতিনিধি সৈয়দপুর, মদন, শাহজাদপুর ও ধামরাই)



সাতদিনের সেরা