kalerkantho

মঙ্গলবার । ৩ কার্তিক ১৪২৮। ১৯ অক্টোবর ২০২১। ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

৩৯ দিন পর লাশ উত্তোলন কিশোরীর

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, ময়মনসিংহ   

২২ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে গর্ভপাত করাতে গিয়ে ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরীর (১৬) মৃত্যু হয়েছে—এমন অভিযোগে মামলা দায়েরের পর আদালত কবর থেকে লাশ উত্তোলনের নির্দেশ দিয়েছিলেন। সে অনুযায়ী গতকাল সোমবার ময়মনসিংহ জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কাশিপিয়া তাসরিনের উপস্থিতিতে সকালে লাশ উত্তোলন করা হয়।

মামলার আরজি ও এলাকা সূত্রে জানা যায়, ওই কিশোরীর বাড়ির পাশে উচাখিলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শফিকুল ইসলামের বড় ভাই মঞ্জুরুল হক মঞ্জু মিয়ার বাড়ি। শফিকুল সেখানে প্রায়ই থাকতেন। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণ করতেন। গত ৯ মে মেয়েটির গর্ভবতী হওয়ার বিষয়টি জানা যায়। সেদিনই কবিরাজের ওষুধ খাওয়ানো হয় তাকে। এতে ব্যাপক রক্তক্ষরণে অসুস্থ হয়ে পড়ে সে। ভর্তি করানো হয় ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। সেখানে অবস্থার অবনিত হলে ঢাকার একটি হাসপাতালে নেওয়া হয়। দুই দিন পর মারা যায় মেয়েটি। বিষয়টি ধামাচাপা দিতে উচাখিলা বাজার থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার দূরে একটি মাদরাসার গোরস্তানের জায়গা কিনে মেয়েটির লাশ দাফন করা হয়।



সাতদিনের সেরা