kalerkantho

শুক্রবার । ৮ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৩ জুলাই ২০২১। ১২ জিলহজ ১৪৪২

চসিক মেয়র বললেন

জলাবদ্ধতা ও যানজটমুক্ত নগরী প্রধান লক্ষ্য

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

২০ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



জলাবদ্ধতা ও যানজটমুক্ত নগরী প্রধান লক্ষ্য

শুক্রবার রাত থেকে গতকাল সকাল পর্যন্ত টানা বৃষ্টিতে তলিয়ে যায় চট্টগ্রাম নগরীর বিভিন্ন সড়ক। ষোলশহর এলাকা থেকে তোলা। ছবি : কালের কণ্ঠ

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) মেয়র মো. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেছেন, চট্টগ্রাম মহানগরীকে যানজট ও জলাবদ্ধতামুক্ত করাই তাঁর প্রধান লক্ষ্য। চসিকের পানি ও বিদ্যুৎ বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. মোরশেদ আলমের সভাপতিত্বে নগরীর ডিজিটাল ট্রাফিক ব্যবস্থাপনার আধুনিকায়ন কাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। নগরীর কাজীর দেউড়ি চত্বরে গতকাল শনিবার এ অনুষ্ঠান হয়।

মো. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, ‘জলাবদ্ধতা ও যানজটমুক্ত নগরী গড়ে তুলতে নগরবাসীকে সচেতন হতে হবে এবং নিয়ম-শৃঙ্খলা মেনে চলার অভ্যস্ততা অর্জন করতে হবে। স্বপ্ন দেখতে হবে এবং দেখাতে হবে। সামর্থ্যের বাইরেও সামনে চলার সাহস ধারণ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে বিশ্বসভায় মর্যাদার আসনে সুপ্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছেন।’ সিটি মেয়র জানান, কেউ কখনো ভাবেনি বিশ্বব্যাংকের সহায়তা ছাড়া নিজ অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ সম্ভব হবে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী সেটা সম্ভব করেছেন। একইভাবে কর্ণফুলীর তলদেশে টানেল সড়ক গড়ে দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। এতে চট্টগ্রাম নগরীর গুরুত্ব অনেক গুণ বেড়ে যাওয়ার পাশাপাশি নগরী দক্ষিণে সম্প্রসারিত হবে।

অনুষ্ঠানে সিএমপি কমিশনার সালেহ্ মোহাম্মদ তানভীর, প্যানেল মেয়র মো. গিয়াস উদ্দিন, কাউন্সিলর অধ্যাপক মো. ইসমাইল, মো. জাবেদ, মো. সলিম উল্লাহ বাচ্চু, শৈবাল দাশ সুমন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর আঞ্জুমান আরা, প্রধান প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম মানিক ও অন্যরা বক্তব্য দেন।

সিএমপি কমিশনার সালেহ্ মোহাম্মদ তানভীর জানান, স্মার্ট সিটি বাস্তবায়ন একা চসিকের পক্ষে সম্ভব নয়। এতে সবার সমন্বিত প্রয়াস এবং দায়বদ্ধতা প্রয়োজন। এ জন্য ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা সিস্টেমের উন্নয়ন, লেন মার্কিং, জেব্রা ক্রসিং, পার্কিং স্পট, ড্রপিং জোন, বাস-কার, সিএনজি, রিকশা ইত্যাদির স্টপেজের নকশা প্রণয়নের কাজ এগিয়ে নিতে হবে।



সাতদিনের সেরা