kalerkantho

শনিবার । ১০ আশ্বিন ১৪২৮। ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৭ সফর ১৪৪৩

করোনায় জীবন বাঁচানোর নতুন চিকিৎসা উদ্ভাবন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দুটি ওষুধ কম্পানির তৈরি অ্যান্টিবডির মিশ্রণ হাসপাতালে ভর্তি কভিড-১৯ আক্রান্ত গুরুতর রোগীদের মৃত্যুর ঝুঁকি অনেকাংশে কমাতে পারে বলে নতুন এক গবেষণায় উঠে এসেছে। গতকাল বুধবার যুক্তরাজ্যের এই গবেষণা প্রতিবেদন প্রকাশিত হয় বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক খবরে বলা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, হাসপাতালে ভর্তি কভিড-১৯ আক্রান্ত ওই সব রোগী যাদের শরীরের নিজস্ব রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা ভাইরাসের বিরুদ্ধে কাজ করতে ব্যর্থ হচ্ছে, তাদের বেলায় যুক্তরাষ্ট্রের ওষুধ কম্পানি রেজেনেরন ফার্মাসিউটিক্যাল এবং সুইজারল্যান্ডের রোশের তৈরি অ্যান্টিবডির মিশ্রণ ‘দারুণ কার্যকর’ প্রমাণিত হয়েছে। দুই অ্যান্টিবডির এই ব্যয়বহুল ককটেল থেরাপিকে বলা হচ্ছে রেজেন-কোভ। চূড়ান্ত ধাপের ট্রায়ালের ফল বলছে, এই থেরাপি কভিড-১৯ রোগীদের মৃত্যুঝুঁকি এবং হাসপাতালে ভর্তির ঝুঁকিও ৭০ শতাংশ কমাতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃপক্ষ কভিড-১৯ আক্রান্ত মৃদু থেকে মাঝারি উপসর্গ আছে এমন ব্যক্তিদের বেলায় এই চিকিৎসাপদ্ধতি ব্যবহারের জরুরি অনুমোদন দিয়েছে। তবে গবেষণায় দেখা গেছে, হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের বেলায় এটি অনেক বেশি কার্যকর হয়েছে। ২৮ দিনের বেশি সময় ধরে হাসপাতালে ভর্তি কভিড-১৯ রোগী, যাদের শরীরের নিজস্ব অ্যান্টিবডি রোগ প্রতিরোধে সাড়া দিচ্ছে না (সেরোনেগেটিভ রোগী), তাদের মৃত্যুর ঝুঁকি এক-পঞ্চমাংশ কমাতে পারে এই অ্যান্টিবডি থেরাপি। গবেষকরা হিসাব করে বলছেন, এই চিকিৎসা প্রতি ১০০ জন সেরোনেগেটিভি রোগীর বেলায় অন্তত ছয়জনের প্রাণ রক্ষা করতে পেরেছে। তবে যাদের শরীরে প্রাকৃতিকভাবে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়ে যায়, তাদের বেলায় এই চিকিৎসাপদ্ধতি কতটা কার্যকর তা এখনো বোঝা যায়নি।

এই ট্রায়ালের যুগ্ম প্রধান গবেষক মার্টিন ল্যান্ডরে বলেন, ‘কভিড-১৯ আক্রান্ত গুরুতর রোগীদের যখন হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তখন এই ভাইরাসের বিরুদ্ধে কোনো চিকিৎসাপদ্ধতি কাজ করবে কি না সেটা নিয়ে খুবই সংশয়ের মধ্যে থাকতে হয়। যদি প্রাকৃতিকভাবে আপনার শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি না হয়, তবে এই অ্যান্টিবডি ব্যবহার করে আপনি সত্যিই উপকার পাবেন।’

রেজেন-কোভ ব্যবহারে সেরোনেগেটিভ রোগীদের বেলায় হাসপাতালে থাকার মেয়াদও কমে আসে। এ ছাড়া ভেন্টিলেটরের প্রয়োজনীয়তাও অনেকটা হ্রাস করা সম্ভব হয় বলে জানান ল্যান্ডরে। সূত্র : রয়টার্স।



সাতদিনের সেরা