kalerkantho

সোমবার । ১৮ শ্রাবণ ১৪২৮। ২ আগস্ট ২০২১। ২২ জিলহজ ১৪৪২

গলায় প্ল্যাকার্ড ঝুলিয়ে সংসদে এমপি শাহজাদা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



গলায় প্ল্যাকার্ড ঝুলিয়ে সংসদে এমপি শাহজাদা

গলায় প্ল্যাকার্ড ঝুলিয়ে গতকাল জাতীয় সংসদে বক্তব্য দেন পটুয়াখালী-৩ আসনের সংসদ সদস্য এস এম শাহজাদা। ছবি : কালের কণ্ঠ

দুর্যোগকবলিত উপকূলীয় অঞ্চলের মানুষের দীর্ঘদিনের দাবি টেকসই বেড়িবাঁধ। কিন্তু বাঁধ না হওয়ায় ভয়াবহ ঝুঁকিতে আছে ওই অঞ্চলের মানুষের জীবন-জীবিকা। সম্প্রতি ঘটে যাওয়া ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের পর ত্রাণ দিতে গেলে তারা ত্রাণের পরিবর্তে বাঁধের দাবি জানিয়েছে। জনগণের সেই প্ল্যাকার্ড গলায় ঝুলিয়ে জাতীয় সংসদে বত্তৃদ্ধতা করেছেন পটুয়াখালী-৩ আসনের সংসদ সদস্য এস এম শাহজাদা।

গতকাল বুধবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রস্তাবিত বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এই দাবি তুলে ধরেন। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশনে বত্তৃদ্ধতার শেষ পর্যায়ে তিনি বেড়িবাঁধ নিয়ে কথা বলেন। এক পর্যায়ে ‘জনগণের প্ল্যাকার্ডটি’ স্পিকারকে দেখান এবং জনগণের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে সেটি বুকে ঝুলিয়ে নেন। অবশ্য তাঁর বত্তৃদ্ধতা শেষ হওয়ার আগেই সময় শেষ হয়ে যাওয়ায় মাইক বন্ধ হয়ে যায়।

এর আগে সরকারদলীয় এই সংসদ সদস্য বলেন, ‘কয়েক দিন আগে ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের দ্বারা আমরা মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি। এই ঘূর্ণিঝড় দক্ষিণাঞ্চলে ব্যাপক তাণ্ডব চালিয়েছে। আমার ওখানে অনেকগুলো চর আছে, যার চারপাশে বড় বড় নদী আছে। আগুনমুখা নদীর কথা শুনেছেন। ঝড়ের সময় অতিরিক্ত জোয়ার ও জলোচ্ছ্বাস ও ঝড়ে ওই নদীর পারের মানুষের ঘরবাড়ি ভেঙেছে। চাষাবাদের জমি নষ্ট হয়ে গেছে। তারা যেসব পুকুরে মাছ চাষ করেছিল, সেগুলো সব জোয়ারের পানিতে ভেসে গেছে।’

এমপি শাহজাদা বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ নিয়ে আমরা সেখানে গেলে লোকজন স্লোগান দিয়েছে—আর কোনো দাবি নাই, ত্রাণ চাই না, বাঁধ চাই। ভুক্তভোগী জনগণ এ ধরনের প্ল্যাকার্ড নিয়ে উপস্থিত হয়েছিল। আমি জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন কেউ না। তাদের পক্ষ থেকে আমি এটা সংসদে উপস্থাপন করলাম।’



সাতদিনের সেরা