kalerkantho

শনিবার । ১০ আশ্বিন ১৪২৮। ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৭ সফর ১৪৪৩

স্মরণসভায় তথ্যমন্ত্রী

নাসিমের চলে যাওয়া দেশের রাজনীতির জন্য ক্ষতি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহ্মুদ বলেছেন, ‘মোহাম্মদ নাসিম তাঁর বাবা মনসুর আলীর মতোই সাহসী ও নির্ভীক ছিলেন। কোনো দিন অন্যায়ের সঙ্গে আপস করেননি। বঙ্গবন্ধু ও চার জাতীয় নেতা হত্যাকাণ্ডের পর অনেক জেল-জুলুম, নির্যাতন তাঁকে সহ্য করতে হয়েছে। বঙ্গবন্ধুহীন আওয়ামী লীগকে সংগঠিত করতে তাঁর অসামান্য অবদান ছিল। তাঁর চলে যাওয়া শুধু দল নয়, দেশের রাজনীতির জন্যও ক্ষতি।’

মোহাম্মদ নাসিমের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত স্মরণসভায় তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন। বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত এই সভায় সভাপতিত্ব করেন আয়োজক সংগঠনের সহসভাপতি কণ্ঠশিল্পী রফিকুল আলম। বক্তব্য দেন তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান, আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, মোহাম্মদ নাসিমের ছেলে তানভীর শাকিল জয় এমপি, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ প্রমুখ।

ড. হাছান মাহ্মুদ বলেন, ‘মোহাম্মদ নাসিম এম মনসুর আলীর সন্তান হিসেবে নেতা হননি। তিনি কর্মী থেকে নেতা হয়েছেন। দলের পক্ষে, আদর্শের পক্ষে সংগ্রাম করে তিনি তরুণ বয়সে কারাগারে গেছেন।’

ডা. মুরাদ হাসান বলেন, ‘নেতা তৈরির কারিগর ছিলেন মোহাম্মদ নাসিম। তিনি ছিলেন রাজনৈতিক শিক্ষক। চরম নির্যাতনের মুখেও তিনি অন্যায়ের সঙ্গে আপস করেননি।’

বিপ্লব বড়ুয়া বলেন, ‘সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে সব সময় সোচ্চার ছিলেন মোহাম্মদ নাসিম।’

তানভীর শাকিল জয় বাবার স্মৃতিচারণা করে বলেন, ‘বাবা সবসময়ই সাধারণ মানুষের কল্যাণে কাজ করেছেন। তাঁর চিন্তা-চেতনায় সব সময় ছিল দলীয় নেতাকর্মী।’



সাতদিনের সেরা