kalerkantho

শনিবার । ১০ আশ্বিন ১৪২৮। ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৭ সফর ১৪৪৩

পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্তই রয়েছে এখন পর্যন্ত

‘শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান না খুলতে পারলে বিকল্প মূল্যায়নের চিন্তা’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্তই রয়েছে এখন পর্যন্ত

এখন পর্যন্ত ২০২১ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্তই রয়েছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি বলেছেন, ‘যদি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া না যায় এবং এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব না হয় সে ক্ষেত্রে বিকল্প মূল্যায়নের চিন্তা-ভাবনা রয়েছে।’

গতকাল মঙ্গলবার শিক্ষা মন্ত্রণালয় আয়োজিত কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি উদ্বোধনকালে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘গত বছরের শেষে এবং এ বছরের শুরুতে সংক্রমণের হার আমরা কমিয়ে আনতে পেরেছিলাম। এখন করোনা সংক্রমণ ঊর্ধ্বগামী। আন্তর্জাতিক পর্যায়ের বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ৫ শতাংশের নিচে গেলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার মতো একটা পরিস্থিতি হয়। কিন্তু এখন তো সংক্রমণের হার ১৩ শতাংশের বেশি।’ তিনি বলেন, ‘স্বাস্থ্যবিধি মানলে সংক্রমণ কমবে। আমরা তো মানছি না, আর মানছি না বলেই বারবার খারাপের দিকে যাচ্ছে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করে যাব, আরো কিছুদিন হয়তো দেখতে হবে। যদি দেখি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান একবারেই খোলা সম্ভব হচ্ছে না তখন আমরা বিকল্প অনেক কিছুই চিন্তা করে রেখেছি। কী কী সিনারিও হতে পারে তারও চিন্তা করছি। সব রকমের সিনারিও চিন্তা করে কী কী সম্ভাব্য বিকল্প থাকতে পারে সেটা নিয়ে কাজ করছি। যদি পরীক্ষা নেওয়া না যায় তাহলে বিকল্প কিভাবে মূল্যায়ন হতে পারে, সেগুলো আমরা ভাবছি।’

দীপু মনি বলেন, ‘আমাদের অনেক রকম চিন্তা আছে। কিন্তু পরীক্ষা হবে কি হবে না, এই মুহূর্তে বলতে পারছি না। হয়তো বা খুব শিগগিরই সিদ্ধান্তটা নিতে হবে, পরীক্ষা নিতে পারব কি পারব না। সেটা সার্বিক পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করবে। কিন্তু যেটাই হোক, শিক্ষার্থীদের সার্বিক কল্যাণ মাথায় রেখে সিদ্ধান্ত হবে।’

মন্ত্রী  বলেন, ‘পরীক্ষার চাপ রেখে আনন্দের মধ্যে কিভাবে পরীক্ষার্থীরা শিখবে সেটা নিয়ে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। অ্যাসাইনমেন্ট এক ধরনের পরীক্ষা। এটা কন্টিনিউ অ্যাসেসমেন্টের একটি পার্ট। আমরা অনেক রকম মূল্যায়নের চেষ্টা করছি।’ শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া অব্যাহত রাখা এবং শিক্ষার্থীরা যাতে অনলাইন গেমে আসক্ত হয়ে না পড়ে সে বিষয়ে নজর রাখতে অভিভাবকদের প্রতি আহবান  জানান তিনি।

দেশব্যাপী বৃক্ষরোপণ অভিযানের অংশ হিসেবে কেরানীগঞ্জের জাজিরা মোহাম্মদিয়া আলিম মাদরাসা, ইডেন মহিলা কলেজ, মোহাম্মদপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, আগারগাঁও মহিলা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ও সরকারি তিতুমীর কলেজে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন মন্ত্রী। এ সময় মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মো. মাহবুব হোসেন, কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আমিনুল ইসলাম খান এবং মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক উপস্থিত ছিলেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় দেশব্যাপী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৩৩  লাখ গাছ লাগানোর কর্মসূচি নিয়েছে।



সাতদিনের সেরা