kalerkantho

রবিবার । ১১ আশ্বিন ১৪২৮। ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৮ সফর ১৪৪৩

সিলেটে ট্রাফিক সার্জনকে পেটালেন ‘ছাত্রলীগকর্মী’

সিলেট অফিস   

১৩ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ট্রাফিক সিগন্যাল অমান্য করতে বাধা দেওয়ায় সিলেটে ট্রাফিক পুলিশের এক সার্জেন্টকে মারধর করেছেন সৌরভ চৌধুরী (২১) ও বাদল চৌধুরী (২৯) নামের দুই সহোদর। তাঁরা নিজেদের ছাত্রলীগকর্মী বলে দাবি করেছেন।

গতকাল শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সিলেট নগরের চৌহাট্টা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। অভিযোগ অনুযায়ী, কোতোয়ালি থানায় নেওয়া হলে সেখানেও পুলিশের পিকআপচালকের ওপর তাঁরা চড়াও হন।

সৌরভ ও বাদল সিলেট শহরতলির টুকেরবাজার এলাকার পীরপুর গ্রামের সন্তোষ ঘোষের ছেলে। দুজনকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, গতকাল দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নগরের চৌহাট্টা এলাকায় তীব্র যানজট দেখা দেয়। এ সময় সব সড়কেই যানবাহনের দীর্ঘ সারি ছিল। এ সময় ট্রাফিক সার্জন মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন দুই সড়কের গাড়ি চলাচল বন্ধ রেখে অন্য দুই সড়কের গাড়ি ছাড়েন। এ সময় সৌরভ ট্রাফিক সিগন্যাল অমান্য করে মোটরসাইকেল নিয়ে যেতে চাইলে সার্জন তাঁকে বাধা দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সৌরভ তাঁর ওপর হামলা চালান এবং উত্তেজিত কণ্ঠে বলতে থাকেন ‘আমি ছাত্রলীগ করি। ফোন দিলে তোর অবস্থা বেহাল হবে।’ হামলায় সার্জেন্ট জসিম আহত হন।

ঘটনার খবর পেয়ে কোতোয়ালি মডেল থানার পুলিশ সদস্যরা চৌহাট্টা পয়েন্টে গিয়ে সৌরভ ও বাদলকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। সার্জেন্ট জসিমকে পাঠানো হয় হাসপাতালে।



সাতদিনের সেরা