kalerkantho

বুধবার । ৪ কার্তিক ১৪২৮। ২০ অক্টোবর ২০২১। ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

বিদেশে চাকরির ফাঁদ, তরুণীকে আটকে রেখে যৌনকাজ

পাচারচক্রের একজন গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা ও সাভার (ঢাকা)   

১২ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



বিদেশে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে গ্রাম থেকে সাভারে এনে জোর করে যৌনকাজে বাধ্য করার অভিযোগে এক নারীকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-৪-এর একটি দল। এ সময় ভুক্তভোগী তরুণীকেও উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেপ্তার নারী লক্ষ্মীপুর জেলার রেহানা বেগম (২২)।

গত বৃহস্পতিবার রাতে সাভারের আমিনবাজার এলাকার বড়দেশী পশ্চিমপাড়া মহল্লার একটি বাসায় অভিযান চালিয়ে ভুক্তভোগী তরুণীকে উদ্ধারসহ অভিযুক্ত নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গতকাল শুক্রবার সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানান সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার ও র‌্যাব-৪-এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মোহাম্মদ সাজেদুল ইসলাম সজল।

তিনি জানান, দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে অল্প বয়সী মেয়েদের উচ্চ বেতনে লোভনীয় চাকরির প্রলোভন দিয়ে পার্শ্ববর্তী বিভিন্ন দেশে পাচার করে একটি সংঘবদ্ধ চক্র। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালানো হয়। অভিযানের সময় পালিয়ে যায় রেহানার স্বামী জাকির হোসেন।

তিনি জানান, আমিনবাজারের বড়দেশী গ্রামে প্রায় তিন বছর ধরে বসবাস করে এই চক্রটি যৌনকাজ ও মানবপাচার পরিচালনা করে আসছিল। গত জানুয়াতি মাসে ভুক্তভোগী তরুণীকে বিদেশে গার্মেন্টে চাকরি দেওয়ার কথা বলে গ্রাম থেকে নিয়ে আসে। পরে আটকে রেখে যৌনকাজে বাধ্য করে।

সাজেদুল ইসলাম জানান, রেহানার ঘর থেকে একটি ডায়েরি জব্দ করা হয়েছে। সেখানে অনেক কাস্টমারের লিস্ট পাওয়া গেছে। মূলত জাকির এই অপরাধের মূল হোতা। তাকে গ্রেপ্তার করা হলে আরো বিস্তারিত জানা যাবে। ভুক্তভোগী তরুণীর নানাবাড়ি জাকিরের বাড়ির কাছে। পরিচয়ের সূত্র ধরেই বিদেশে পাঠানোর কথা বলে তাকে নিজেদের কাছে নিয়ে আসে।



সাতদিনের সেরা