kalerkantho

সোমবার । ৫ আশ্বিন ১৪২৮। ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১২ সফর ১৪৪৩

শিশু ধর্ষণচেষ্টা ও নারী ধর্ষণের অভিযোগ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১২ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশের বগুড়া ও মাদারীপুরে এক শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে এবং এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক ব্যক্তি তাঁর ভাইয়ের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি জানান, বগুড়ার শেরপুরে তিন বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ভুক্তভোগী শিশুকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে উপজেলার সুঘাট ইউনিয়নের আওলাকান্দি নতুনপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী শিশুর বাবা অভিযোগ করেন, ওই দিন তাঁর মেয়ে বাড়ির পাশে খালের পারে খেলা করছিল। এ সময় একই গ্রামের আশরাফ আলীর ছেলে কিশোর রাব্বী হাসান তাঁকে চকোলেট খাওয়াবে বলে পাশের মুরগির খামারের মধ্যে নিয়ে যায়। এক পর্যায়ে ভুক্তভোগী শিশু চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে। বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার পর শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

শিশুর বাবা জানান, মেয়ের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে থাকার কারণে তিনি থানায় অভিযোগ করতে পারেননি।

শেরপুর থানার ওসি মো. শহিদুল ইসলাম জানান, তিনি ঘটনাটি মৌখিকভাবে শুনেছেন, লিখিত কোনো অভিযোগ পাননি। অভিযোগ পেলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে শিবচর (মাদারীপুর) প্রতিনিধি জানান, শিবচরে দেবরের বিরুদ্ধে তাঁর ভাবিকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভুক্তভোগী ওই গৃহবধূর স্বামী বাদী হয়ে ছোট ভাইয়ের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, প্রায় ছয় মাস আগে শিবচরের রাজারচর মৌলভীকান্দি গ্রামের এক পরিবারের বড় ছেলের সঙ্গে ভুক্তভোগীর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তাঁর দেবর তাঁকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করতেন। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ভুক্তভোগীর স্বামী বাড়িতে ছিলেন না। এ সময় তিনি প্রয়োজনে বাইরে বের হলে ভুক্তভোগীর দেবর তাঁর মুখ চেপে ধরে মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে পাশের ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করেন। রাতে তাঁর স্বামী বাড়িতে এলে তিনি সব জানান। গতকাল শুক্রবার ওই ভুক্তভোগীর স্বামী বাদী হয়ে ছোট ভাইয়ের নামে শিবচর থানায় মামলা করেন।