kalerkantho

মঙ্গলবার । ৮ আষাঢ় ১৪২৮। ২২ জুন ২০২১। ১০ জিলকদ ১৪৪২

হরিণ আটকে রাখায় ‘পীরের’ নামে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুষ্টিয়া   

১১ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ১ মিনিটে



কুষ্টিয়ার দৌলতপুরের কথিত এক দরবার শরিফ থেকে দুটি হরিণ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় সেখানকার কথিত পীরসহ দুজনের নামে মামলা করেছে বন বিভাগ। এদের একজনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। গত বুধবার সন্ধ্যায় কল্যাণপুরের কথিত ওই দরবার শরিফে অভিযান চালানো হয়।

বন বিভাগের কর্মকর্তা আবু বক্কর সিদ্দিক জানান, কল্যাণপুর দরবার শরিফের ভেতরে অবৈধভাবে দুটি হরিণ আটক করে রাখা হয়েছে—এমন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে অভিযান চালানো হয়। দৌলতপুর উপজেলা প্রশাসন ও দৌলতপুর থানা পুলিশের সহযোগিতায় কথিত দরবার শরিফের ভেতর থেকে দুটি হরিণ উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তার করা হয় শের খান নামের এক ব্যক্তিকে। তিনি সেখানকার কথিত পীর তাছের ফকিরের শ্যালক। তাছের পলাতক রয়েছেন। দৌলতপুর থানার ওসি নাসির উদ্দিন জানান, এ ঘটনায় বন্য প্রাণী সংরক্ষণ আইনে বন বিভাগের পক্ষ থেকে মামলা হয়েছে। গত রবিবার ফোনসেট চুরির অভিযোগে কথিত ওই দরবার শরিফে রাশেদ নামের এক যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় তাছের ফকিরকেও আসামি করা হয়েছে।