kalerkantho

সোমবার । ৭ আষাঢ় ১৪২৮। ২১ জুন ২০২১। ৯ জিলকদ ১৪৪২

সংক্ষিপ্ত

কর্ণফুলী গ্যাসের দুই কর্তা জেলে

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১১ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চট্টগ্রাম মহানগরের ষোলোশহর কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কম্পানির ইঞ্জিনিয়ারিং সার্ভিসেস ডিভিশনের মহাব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মো. সারওয়ার হোসেন এবং সাবেক মহাব্যবস্থাপক মুজিবুর রহমানকে গ্রেপ্তার করেছে দুদক। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে আগ্রাবাদ থেকে তাঁদের গ্রেপ্তারের পর দুপুরে চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ আদালতে সোপর্দ করা হয়। আসামিদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন মহানগর দায়রা জজ শেখ আশফাকুর রহমান। এদিকে গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কম্পানি লিমিটেডের সাবেক ও বর্তমান মহাব্যবস্থাপকের মুক্তির দাবিতে আন্দোলন শুরু করেছেন প্রতিষ্ঠানের কর্মীরা। দুদকের (দুর্নীতি দমন কমিশন) আইনজীবী কাজী সানোয়ার হোসেন লাভলু বলেন, দুদক সম্মিলিত কার্যালয়-১-এর উপসহকারী পরিচালক শরীফ উদ্দিন বাদী হয়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে একটি মামলা করেছেন। ওই মামলায় দুই আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তার ও পলাতক আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তাঁরা জালিয়াতি করে সাবেক এক মন্ত্রীর ছেলের নামে গ্যাস সংযোগ এবং স্থানান্তর করেছেন। অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়ার পর দুদকের প্রধান কার্যালয়ের অনুমোদন নিয়ে একটি মামলা করা হয়। মামলার অন্য আসামিরা হলেন কেজিডিসিএলের সাবেক মহাব্যবস্থাপক (বিপণন) মোহাম্মদ আলী চৌধুরী, টেকনিশিয়ান দিদারুল আলম এবং সাবেক প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসির ছেলে মুজিবুর রহমান। মামলার এজাহারে বলা হয়, হালিশহরে এক ব্যক্তির (এম এ সালাম) নামে বরাদ্দ ১৮টি দ্বৈত চুলার সংযোগ থেকে ১২টি চুলা চান্দগাঁও সানোয়ারা আবাসিক এলাকায় স্থানান্তর করা হয়েছে মুজিবুর রহমানের সঙ্গে ভুয়া চুক্তিনামা করে। কিন্তু এক গ্রাহকের নামে বরাদ্দকৃত চুলা অন্য গ্রাহককে দেওয়ার বিধান নেই।