kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ শ্রাবণ ১৪২৮। ৫ আগস্ট ২০২১। ২৫ জিলহজ ১৪৪২

করোনার সংক্রমণ বাড়ছেই

সিলেটে ১০ দিনে ২১ মৃত্যু

সিলেট অফিস   

১১ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৪ মিনিটে



সিলেটে ১০ দিনে ২১ মৃত্যু

সিলেট জেলায় করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়েই চলেছে। চলতি জুন মাসের প্রথম ১০ দিনে জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে ২১ জন মারা গেছে। এই সময়ে আক্রান্ত হয়েছে ৫৯৫ জন। জেলায় এ পর্যন্ত করোনায় ৩৯৪ জন মারা গেছে, যা সিলেট বিভাগের মোট মৃত্যুর ৮১ শতাংশের বেশি। একইভাবে বিভাগের মোট শনাক্তের ৬৫ শতাংশের বেশি সিলেট জেলার বাসিন্দা।

এদিকে সীমান্তবর্তী জেলা হওয়ায় সিলেটে করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা। বিশেষ করে জেলার কোম্পানীগঞ্জ, গোয়াইনঘাট, জৈন্তাপুর, কানাইঘাট, বিয়ানীবাজার ও জকিগঞ্জ উপজেলা ঘিরে রয়েছে ভারতীয় সীমান্ত। এসব সীমান্ত দিয়ে লোক চলাচল কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণ করা যায়নি। গত রবিবার ভারতে ফিরে আসার পথে চারজনকে আটক করে কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলিশ। পরে তাদের জরিমানা করে ছেড়ে দেওয়া হয়।

মূলত ঈদের পর থেকে সিলেট জেলায় করোনার সংক্রমণ বাড়ছে। এ ছাড়া গত বছর জুন মাসেও সিলেট বিভাগে সর্বোচ্চ শনাক্ত ও মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছিল। বিভাগে গত জুনে তিন হাজার ৫৭৪ জনের করোনা শনাক্ত হয় এবং মৃত্যু হয় ৫৮ জনের। এর মধ্যে ১১ জুন সর্বোচ্চ ২৬৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল।

চলতি জুন মাসের প্রথম ১০ দিনে সিলেট জেলায় ৫৯৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ হিসাবে জেলায় প্রতিদিন গড়ে  ৫৯ জনের বেশি শনাক্ত হয়েছে। যদিও আগের চেয়ে এখন নমুনা পরীক্ষা কম হচ্ছে। গত ১০ দিনে সিলেট বিভাগে ২২ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে। এর মধ্যে সিলেট জেলায়ই মারা গেছে ২১ জন। বাকি একজন মৌলভীবাজার জেলার।

সিলেট বিভাগে গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৩ হাজার ৩৯৫ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে সিলেট জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৫ হাজার ৩৯৬ জন। বিভাগের মোট আক্রান্তের ৬৫.৮০ শতাংশই সিলেট জেলার বাসিন্দা। একইভাবে সিলেট জেলায় মৃত্যুর হারও বেশি। বিভাগে এ পর্যন্ত ৪২৮ জন মারা গেছে। এর মধ্যে শুধু সিলেট জেলায় মারা গেছে ৩৪৯ জন। বিভাগের মোট মৃত্যুর ৮১.৫৪ শতাংশই সিলেট জেলার। এ ছাড়া সিলেট জেলায় শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার জাতীয় হারের চেয়েও বেশি। গতকাল পর্যন্ত শনাক্ত বিচেনায় মৃত্যুর হার (সারা দেশের ভিত্তিতে) ১.৫৮ শতাংশ। কিন্তু সিলেট জেলায় শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার ২.২৬ শতাংশ।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেট বিভাগীয় কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত সিলেট বিভাগে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ২৩ হাজার ৩৯৫ জন। এর মধ্যে সিলেট জেলায় সর্বোচ্চ ১৫ হাজার ৩৯৬ জন, সুনামগঞ্জে দুই হাজার ৮৫১ জন, হবিগঞ্জে দুই হাজার ৫৩৯ জন ও মৌলভীবাজারে দুই হাজার ৬০৯ জন রয়েছে।

সিলেট বিভাগে এ পর্যন্ত ৪২৮ জন করোনাভারাইরাসে মারা গেছে। মৃতদের মধ্যে সিলেট জেলায় সর্বোচ্চ ৩৪৯ জন, সুনামগঞ্জে ৩০ জন, হবিগঞ্জে ১৮ জন এবং মৌলভীবাজার জেলায় ৩১ জন রয়েছে।

বিভাগে এ পর্যন্ত ২১ হাজার ৯২৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী সুস্থ হয়েছে। এর মধ্যে সিলেট জেলায় ১৪ হাজার ৭৩৯ জন, সুনামগঞ্জের দুই হাজার ৭৫১ জন, হবিগঞ্জের দুই হাজার ৮১ জন এবং মৌলভীবাজার জেলার দুই হাজার ৩৫৩ জন।

গতকাল সকাল পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ২৩৫ জন রোগী বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এর মধ্যে সিলেটের বিভিন্ন হাসপাতালে ২১০ জন, সুনামগঞ্জের হাসপাতালে একজন, হবিগঞ্জের হাসপাতালে পাঁচজন ও মৌলভীবাজারের হাসপাতালে ১৯ জন চিকিৎসাধীন রয়েছে।

সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় বলেন, ‘মাস্ক ব্যবহার করলে অনেকাংশই নিজেকে নিরাপদ রাখা যাবে। বাইরে বের হলে অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। কিন্তু করোনার সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির সময়ও মানুষ স্বাস্থ্যবিধি মানছে না। এর ফলে সংক্রমণঝুঁকি বাড়ছে।’



সাতদিনের সেরা