kalerkantho

সোমবার । ১১ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৬ জুলাই ২০২১। ১৫ জিলহজ ১৪৪২

এক বাড়িতে দুই কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ, গ্রেপ্তার ৪

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি   

১০ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার নবীগঞ্জের ইসলামবাগ এলাকার একটি বাড়িতে দুই কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গত মঙ্গলবার তাদের ঘুরতে যাওয়ার কথা বলে ডেকে নিয়ে এ নির্যাতন করা হয়। এ ঘটনায় এদিন রাতে এক ভুক্তভোগী বাদী হয়ে পাঁচজনকে আসামি করে বন্দর থানায় একটি মামলা করেছে।

আসামিরা হলেন নারায়ণগঞ্জ সদর থানার টিটু মিয়ার ছেলে সিফাত হোসেন (১৮), বন্দরের কুশিয়ারা এলাকার আব্দুল মান্নান সরদারের ছেলে সিফাত (২১), ইসলামবাগের আলাউদ্দিন মিয়ার ছেলে সাকিব (১৯), একই এলাকার নাঈম মিয়া (১৮) ও শাকিল (২০)। পুলিশ মঙ্গলবার রাতে ও গতকাল বুধবার দুপুরে অভিযান চালিয়ে পৃথক স্থান থেকে শাকিল ছাড়া সবাইকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ভুক্তভোগী দুজন সম্পর্কে বান্ধবী। তাদের একজন বন্দর ও অন্যজন সদর থানা এলাকার বাসিন্দা। সাত-আট দিন আগে তারা নবীগঞ্জ ফেরিঘাট এলাকায় গেলে সিফাত হোসেন ও সিফাতের সঙ্গে তাদের পরিচয় হয়। তারা মোবাইল ফোন নম্বর আদান-প্রদান করে। পরে দুই বান্ধবীর একজনের সঙ্গে সিফাত হোসেনের ও অন্যজনের সঙ্গে সিফাতের প্রেমের সম্পর্ক হয়। এরই সুবাদে গত মঙ্গলবার বিকেলে তাদের একসঙ্গে মাজারে ঘুরতে যাওয়ার কথা বলে ডেকে নেন দুই সিফাত। পরে তাদের ইসলামবাগে সাকিবের বাড়িতে ঝালমুড়ি খাওয়ানোর কথা বলে নিয়ে যান তাঁরা। সেখানে অন্য তিন আসামি উপস্থিত ছিলেন। পরে দুই কিশোরীকে দুটি আলাদা কক্ষে নিয়ে একটিতে সিফাত হোসেন ও আরেকটিতে সিফাত ঢুকলে বাকি তিনজন বাইরে থেকে দরজা বন্ধ করে দেন। সেখানে দুই কিশোরী কান্নাকাটি করলেও তাদের ধর্ষণ করেন দুই সিফাত।

বন্দর থানার ওসি দীপক চন্দ্র সাহা জানান, অন্য আসামিকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার প্রক্রিয়া চলছে।



সাতদিনের সেরা