kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ আশ্বিন ১৪২৮। ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৩ সফর ১৪৪৩

বিশ্ব খাদ্য সুরক্ষা দিবস

নিরাপদ খাদ্য, ফসলের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করতে হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কৃষিতে অতিমাত্রায় কীটনাশক ব্যবহার, মাছ-মুরগিকে অ্যান্টিবায়োটিক ও ক্ষতিকর উপাদানযুক্ত খাবার দেওয়ায় নিরাপদ ও স্বাস্থ্যসম্মত খাবারের অভাব ঘুচছে না। আবার দেশে খাদ্য উত্পাদন সন্তোষজনক হলেও কৃষকরা ন্যায্য মূল্য পাচ্ছেন না। এ পরিস্থিতিতে ভোক্তাদের জন্য নিরাপদ খাদ্য ও কৃষকের জন্য ফসলের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করাই বড় চ্যালেঞ্জ।

গত সোমবার রাতে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) নগর ভবনের শীতলক্ষ্যা হল রুমে বিশ্ব খাদ্য সুরক্ষা দিবস-২০২১ উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনাসভায় বক্তারা এ অভিমত তুলে ধরেন।

ডিএসসিসির সহযোগিতায় সুইজারল্যান্ডভিত্তিক আন্তর্জাতিক সংস্থা গ্লোবাল অ্যালায়েন্স ফর ইমপ্রুভড নিউট্রিশন (গেইন) এ সভার আয়োজন করে। এ ছাড়া শোভাযাত্রা বের করা হয়।

এবারের দিবসের প্রতিপাদ্য ‘আজকের নিরাপদ খাদ্য, স্বাস্থ্যকর আগামীর জন্য।’ 

করোনা পরিস্থিতিতে পুষ্টিকর ও নিরাপদ খাবার সরবরাহ এবং সুষ্ঠু বাজার ব্যবস্থাপনার লক্ষ্যে গেইনের আওতায় ‘ইটসেইফ : এভিডেন্স অ্যান্ড অ্যাকশন টুওয়ার্ডস সেইফ, নিউট্রিয়াস ফুড : কভিড-১৯  রেসপন্স’ নামে দুটি প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন রয়েছে। ইউএসএইডের অর্থায়নে প্রকল্প দুুটি বাস্তবায়িত হচ্ছে।

সভায় বক্তব্য দেন ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদ আহমেদ, ডিএসসিসি অঞ্চল-৩-এর আঞ্চলিক কর্মকর্তা বাবর আলী মীর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মত্স্য বিভাগের অধ্যাপক ডা. মো. রোকোনুজ্জামান, ইনস্টিটিউশন অব পাবলিক হেলথ নিউট্রিশনের ডেপুটি প্রগ্রাম ম্যানেজার ডা. মনজুর আল মোরশেদ চৌধুরী, বাংলাদেশ খাদ্য সুরক্ষা অধিদপ্তরের সদস্য অধ্যাপক ডা. মো. আব্দুল আলীম, গেইন বাংলাদেশের পোর্টফোলিও লিড আশেক মাহাফুজ, ইটসেইফ প্রকল্পের পরিচালক সাখাওয়াত হোসেন প্রমুখ।

সভায় বক্তারা ভোক্তাদের সুলভ মূল্যে স্বাস্থ্যসম্মত ও নিরাপদ খাবার গ্রহণে উত্সাহিত করতে সচেতনতার ওপর বিশেষ গুরুত্বারোপ করেন। এ ছাড়া বক্তারা দেশে ফসল উত্পাদনে অতিমাত্রায় কীটনাশক ব্যবহার না করা এবং মাছ-মুরগিকে মাত্রাতিরিক্ত অ্যান্টিবায়োটিক না দিতে কৃষক, খামারিসহ সংশ্লিষ্ট উত্পাদনকারীদের প্রতি আহ্বান জানান।



সাতদিনের সেরা