kalerkantho

সোমবার । ১১ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৬ জুলাই ২০২১। ১৫ জিলহজ ১৪৪২

করোনা সংক্রমণ বাড়ায় ৪০০ চুল কারখানা বন্ধ

স্বাস্থ্যবিধি মানা হয় না : চুয়াডাঙ্গার ডিসি

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি   

৩ জুন, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় চুয়াডাঙ্গার ৪০০ চুল প্রক্রিয়াকরণ কারখানা বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন জেলা প্রশাসক। গতকাল বুধবার থেকে কারখানাগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এসব কারখানার প্রায় সবই দামুড়হুদা উপজেলার সীমান্তবর্তী মুন্সীপুর, কুতুবপুর ও কার্পাসডাঙ্গা এলাকায় গড়ে উঠেছে।

এ বিষয়ে চুয়াডাঙ্গার জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার কালের কণ্ঠকে বলেন, জেলায় যদি ১০০ জন করোনা আক্রান্ত হয় তার অর্ধেকের বেশি দামুড়হুদার। দামুড়হুদার চুল কারখানাগুলোতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা হয় না। তা ছাড়া ভারত থেকে চোরাপথে চুল আসার অভিযোগ আছে। এসব কারণে জেলার সব চুল কারখানা বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সংক্রমণ কমে গেলে চুল কারখানা খোলার অনুমতি দেওয়া হবে।

ভারতে সম্প্রতি নতুন ধরনের করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সীমান্ত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তার পরও সীমান্তে বেশ কয়েকটি জেলায় করোনার ভারতীয় ধরনের সংক্রমণ বাড়ছে। অভিযোগ আছে, চুয়াডাঙ্গার চুলের কারখানাগুলোতে ভারত থেকে সীমান্ত হয়ে চোরাপথে চুল আসছে।

চুয়াডাঙ্গা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি দামুড়হুদা উপজেলা এলাকার সীমান্তবর্তী গ্রামগুলোতে করোনা সংক্রমণ বেড়ে গেছে। উপজেলার সীমান্তবর্তী কার্পাসডাঙ্গা, কুতুবপুর, মুন্সীপুর, ঝাঝাডাঙ্গা, নাস্তিপুর, কুড়ুলগাছি, বলদিয়া প্রভৃতি এলাকায় সংক্রমণ বেশি বেড়েছে। গত মঙ্গলবার জেলায় করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে ১৩ জন। এর মধ্যে দামুড়হুদা উপজেলার বাসিন্দা আছে পাঁচজন। বাকিদের বাড়ি অন্য তিন উপজেলায়। তার আগের দিন সোমবার জেলায় শনাক্ত হয়েছে ১৮ জন। তার মধ্যে ১৩ জনের বাড়ি দামুড়হুদা উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে। গত রবিবার শনাক্ত হয়েছিল ১১ জন। এর মধ্যে ছয়জনের বাড়ি দামুড়হুদায়।

কার্পাসডাঙ্গার ‘একতা হেয়ার প্রসেসিং ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি লিমিটেডের’ সভাপতি হাসিবুজ্জামান শহীদ বিশ্বাস কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘প্রতিটি কারখানায় নারী শ্রমিক আছেন ২০০ করে। প্রায় দুই হাজার পুরুষ শ্রমিক বাড়ি বাড়ি গিয়ে চুল কিনে আনার কাজ করেন। সব মিলিয়ে লক্ষাধিক নারী-পুরুষ চুল ব্যবসায় কাজে সম্পৃক্ত। আমাদের কোনো শ্রমিক ভারত থেকে চুল আনেন না। অন্য জেলার কিছু অসাধু ব্যবসায়ী ভারত থেকে অবৈধ পথে চুল আনেন।’

চুয়াডাঙ্গার ৬ বিজিবি ব্যাটালিয়নের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ খালেকুজ্জামান বলেন, অবৈধ পথে ভারত থেকে চুল আনার সময় বিজিবি সদস্যরা এর আগে চুল জব্দ করেছেন।



সাতদিনের সেরা