kalerkantho

শনিবার । ৩১ আশ্বিন ১৪২৮। ১৬ অক্টোবর ২০২১। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

স্ত্র্রীকে হত্যার অভিযোগে স্বামী আটক

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি   

২৭ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় তানজিদা আক্তার পপি (২৫) নামের এক গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যার অভিযোগে তাঁর স্বামী হীরা চৌধুরীকে (৩০) আটক করেছে পুলিশ। এ সময় হত্যাকাণ্ডে ব্যবহূত রক্তমাখা ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে।

গতকাল বুধবার ফতুল্লা মডেল থানার পূর্ব লামাপাড়া এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। হীরা থানার পূর্ব লামাপাড়ার ওমর চৌধুরী তুহিনের ছেলে। পপি বক্তাবলীর রাজাপুরের মৃত আলী আশরাফের মেয়ে। তাঁদের দুটি শিশুসন্তান রয়েছে।

ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ জানায়, গতকাল ভোরে হীরা তাঁর স্ত্রীকে ছুরি দিয়ে গলা কেটে হত্যা করে পাশের রুমে গিয়ে লুকিয়ে ছিলেন বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাঁকে আটক করে ও মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠায়। হীরা মাদকাসক্ত ছিলেন বলে জানা যায়।

পপির মা জানান, বিয়ের পর থেকে মেয়ের শ্বশুরবাড়ি থেকে যৌতুকের চাপ দেওয়া হতো। কয়েক দফায় যৌতুকের টাকা দেওয়া হয়। গত মঙ্গলবার তিনি মেয়ের শ্বশুরবাড়ি গিয়ে আরো ৫০ হাজার টাকা দিয়ে আসেন। গতকাল ফোন করে জানানো হয়, তাঁর মেয়ে হাসপাতালে আছেন। সেখানে গিয়ে তাঁরা মেয়ের মৃত্যুর খবর জানতে পারেন।

ফতুল্লা মডেল থানার উপপরিদর্শক জাকির মাসুদ জানান, পপিকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়েছে। তাঁর স্বামীকে আটক করে রক্তমাখা ছুরি উদ্ধার করা হয়েছে।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান জানান, মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহরের নারায়ণগঞ্জ (ভিক্টোরিয়া) জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।



সাতদিনের সেরা