kalerkantho

শনিবার । ১০ আশ্বিন ১৪২৮। ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৭ সফর ১৪৪৩

কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার ১

শিশু ধর্ষণচেষ্টা মানববন্ধনের পর মামলা

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৭ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কুমিল্লার নাঙ্গলকোটে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। নাটোরের গুরুদাসপুরে শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার তিন দিন পর থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে উপজেলার দড়িকাছিকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ স্থানীয়রা মানববন্ধন করার পর দুপুরে গুরুদাসপুর থানায় মামলাটি রেকর্ড করা হয়। এদিকে বগুড়ার আদমদীঘিতে গৃহবধূকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

নাঙ্গলকোটে গ্রেপ্তার মেহেদী হাছান শাকিব (১৯) পৌর এলাকার নাওগোদা গ্রামের জসিম উদ্দীনের ছেলে। গত রবিবার রাতে ঘটনার সময় উপজেলার কুরকুটা গ্রাম থেকে তাঁকে আটক করে পুলিশে দেয় স্থানীয়রা। মঙ্গলবার তাঁকে আদালতের মাধ্যমে কুমিল্লা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় কিশোরীর ভাই মেহেদীর বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। নাঙ্গলকোট থানার ওসি আব্দুন নুর বলেন, ভুক্তভোগীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

গুরুদাসপুরে অভিযুক্ত আবদুল কুদ্দুস (৫০) উপজেলার মশিন্দা পূর্ব চরপাড়া গ্রামের আবদুল হাদীর ছেলে। অভিযোগ মতে, স্কুলছাত্রী শিশুটি (৭) গত রবিবার দুপুরে তার চাচার বাড়িতে যাচ্ছিল। পথে তাকে আম দেওয়ার কথা বলে পুকুরপারে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করেন আবদুল কুদ্দুস। ঘটনার দিনই শিশুটি বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়। অভিযোগটি মামলার নথিভুক্ত না হওয়ায় মানববন্ধন করে এলাকাবাসী। শিশুটির বাবা বলেন, ‘আমরা হয়রানির শিকার হয়েছি। তার পরও ন্যায়বিচার পাওয়ার আশা করছি।’ গুরুদাসপুর থানার ওসি মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, মামলা হয়েছে। তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আদমদীঘিতে গত মঙ্গলবারের ঘটনায় এদিন রাতে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলাটি করেন ভুক্তভোগী গৃহবধূ। মামলায় উপজেলার মঙ্গলপুর গ্রামের মৃত আব্বাস আলীর ছেলে আজিজুল হককে (৪৫) আসামি করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, আজিজ দীর্ঘদিন ধরে ওই গৃহবধূকে অনৈতিক প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। কিন্তু গৃহবধূ রাজি না হওয়ায় আজিজের ক্ষোভ বাড়ে। গৃহবধূ একই এলাকায় তাঁর বাবার বাড়িতে বেড়াতে যান। বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে আজিজ ঘরে ঢুকে গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। গৃহবধূ চিৎকার দিলে আজিজ পালিয়ে যান।

আদমদীঘি থানার ওসি জালাল উদ্দীন বলেন, পলাতক আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

[প্রতিবেদনে তথ্য দিয়েছেন কালের কণ্ঠ’র সংশ্লিষ্ট এলাকার প্রতিনিধিরা]



সাতদিনের সেরা