kalerkantho

রবিবার । ১০ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৫ জুলাই ২০২১। ১৪ জিলহজ ১৪৪২

মৌসুমী-ওমর সানীর ছেলের ‘সিসা বারে’ অভিযান, আটক ১১

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২০ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজধানীর গুলশানে ‘মন্টানা লাউঞ্জ’ নামের একটি রেস্তোরাঁয় অভিযান চালিয়ে ম্যানেজারসহ ১১ জনকে আটক করেছে গুলশান থানা পুলিশ। এ সময় ছয় প্যাকেট সিসা ও সিসা নেওয়ার স্ট্যান্ডসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম জব্দ করা হয়। রেস্তোরাঁটি তারকা দম্পতি মৌসুমী-ওমর সানীর ছেলে ফারদিন এহসান স্বাধীনের বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গত মঙ্গলবার রাতে গুলশান এভিনিউয়ের আরএম সেন্টারের তৃতীয় তলায় এ অভিযান চালানো হয়। অভিযানে আটক ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, দেশীয় আইনে সিসা অবৈধ মাদক হিসেবে চিহ্নিত। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই বারে অভিযান চালিয়ে বারের সবাইকে আটক করা হয়েছে। এ সময় ছয় প্যাকেট দামি সিসা, ১৭টি সিসা স্ট্যান্ড ও ২৫টি পাইপ উদ্ধার করা হয়েছে।

ওমর সানী জানান, সিসা বার চালানো অবৈধ বলে তাঁর জানা নেই। এটা মূলত খাবারের রেঁস্তোরা। ‘কিছু সময়’ সিসা ‘সার্ভ’ করা হয়। এ ছাড়া আটক ব্যক্তিরা রেস্তোরাঁকর্মী বলে তিনি দাবি করেন।

সানী বলেন, ‘আমি আইনের সঙ্গেই শতভাগ আছি। আমার প্রশ্ন, গুলশানে কি শুধু একটাই লাউঞ্জ আছে? নামকরা সিসা লাউঞ্জগুলো পাঁচ-সাত বছর ধরে চলছে। আমার জানা মতে, বাংলাদেশে দুই শ থেকে তিন শ লাউঞ্জ আছে। পুরো বাংলাদেশে আজকের মধ্যেই যদি সব লাউঞ্জ ক্লোজ হয়ে থাকে, তাহলে রাষ্ট্রের প্রতি আমার কোনো অভিযোগ নেই। কিন্তু পার্টিকুলারলি আমাকে টার্গেট করে যদি অভিযান করা হয়ে থাকে, তাহলে রাষ্ট্রের কাছে বিচার চাইব।’

গুলশান থানার ওসি আবুল হাসান জানান, আটক ব্যক্তিদের সবার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। মামলায় স্বাধীনকে আসামি করা হয়নি।



সাতদিনের সেরা