kalerkantho

শুক্রবার । ২ আশ্বিন ১৪২৮। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১। ৯ সফর ১৪৪৩

রাবিতে ‘অবৈধ’ নিয়োগ

স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার চান সেই ১৩৮ জন

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

২০ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) সম্প্রতি অ্যাডহক ভিত্তিতে নিয়োগ পাওয়া সেই ১৩৮ জন কর্মস্থলে যোগদানের জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। গতকাল বুধবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের পেছনে সংবাদ সম্মেলন করেন তাঁরা।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও মেয়াদের শেষ মুহূর্তে গত ৫ মে শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারী পদে ১৩৮ জনকে অ্যাডহক ভিত্তিতে নিয়োগ দিয়ে বিদায় নেন উপাচার্য অধ্যাপক আব্দুস সোবহান। পরে শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এই নিয়োগকে অবৈধ বলে উল্লেখ করে বিষয়টি খতিয়ে দেখতে তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়। এ ছাড়া এই বিষয়ে সরকারের কোনো সিদ্ধান্ত না আসা পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকেও নিয়োগপ্রাপ্তদের কর্মস্থলে যোগদানে স্থগিতাদেশ দেওয়া হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন নিয়োগপ্রাপ্ত আব্দুল্লাহ আল মাসুদ। এতে দাবি করা হয়, ১৯৭৩ সালের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাদেশ-এর ১২(৫) ধারা অনুযায়ী এই নিয়োগকে অবৈধ বলার কোনো সুযোগ নেই। এ ছাড়া তাঁদের কর্মস্থলে যোগদানের ক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের স্থগিতাদেশও নিয়মবহির্ভূত বলে দাবি করেন মাসুদ। এই স্থগিতাদেশ প্রত্যাহারের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ চেয়েছেন তাঁরা।

সংবাদ সম্মেলনে নিয়োগপ্রাপ্তদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি ইলিয়াছ হোসেন ও রায়হান মাসুদ, রাজশাহী জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক ফারদীন প্রমুখ।



সাতদিনের সেরা