kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৭ বৈশাখ ১৪২৮। ১০ মে ২০২১। ২৮ রমজান ১৪৪২

পুঁতে ফেলা তিমি নিয়ে বিভ্রান্তি

বিশেষ প্রতিনিধি, কক্সবাজার   

৪ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



কক্সবাজারের হিমছড়ি সমুদ্রসৈকতের বালুচরে পুঁতে ফেলা একটি তিমি বেরিয়ে পড়েছে। জোয়ারের পানিতে বালু সরে এটি ভেসে উঠে গর্ত থেকে। আর অনেকেই তিমির ওই মরদেহ দেখে নতুন করে তৃতীয় দফায় আরেকটি তিমি ভেসে এসেছে বলে মনে করেছিলেন। গত রবিবার বিকেলের এই ঘটনায় বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছে। আকস্মিক হিমছড়ি সৈকতের চরে গলিত একটি তিমি দেখে লোকজন ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়। ঘটনা জানতে পেরে ছুটে যান রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রণয় চাকমা। তিনিও প্রথমে তৃতীয়বারের মতো আরেকটি তিমির মরদেহ ভেসে আসার কথা জানিয়েছিলেন। পরে অবশ্য যাচাই-বাছাই করে জানা যায় যে গত ১০ এপ্রিল ভেসে আসা তিমিটিই এটি। কক্সবাজারের সামুদ্রিক মৎস্য গবেষণা ইনস্টিটিউটের জ্যেষ্ঠ বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. আশরাফুল হক গতকাল সোমবার কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আমরা খবর পেয়েই হিমছড়ি সৈকতে ছুটে গিয়ে দেখতে পাই তিমিটির মাথা ও লেজ নেই। পরে আশপাশে সন্ধান নিয়ে জানা গেল যে এটি ২২ দিন আগে একই চরে পুঁতে ফেলা দুটি তিমির একটি। এটি একই স্থানে আবারও বালুচাপা দেওয়া হচ্ছে।’ এদিকে সৈকতে ভেসে আসা তিমি দুটি একই স্থানে বালুচাপা দেওয়ার ঘটনায় স্থানীয় পরিবেশকর্মীরা সাগরের পরিবেশ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। কক্সবাজার বন ও পরিবেশ রক্ষা কমিটির সভাপতি দীপক শর্মা দীপু বলেন, তিমি দুটি বালুচর থেকে টেনে যেকোনোভাবে ওপরের তীরে পাহাড়ের পাদদেশে নিয়ে আসা উচিত ছিল। তা না করে প্রশাসনের কর্মকর্তারা হিমছড়ি সাগরপারের বালুচরেই গর্ত করে তিমি দুটিকে চাপা দিয়ে ফেলেন।



সাতদিনের সেরা