kalerkantho

শনিবার । ৯ শ্রাবণ ১৪২৮। ২৪ জুলাই ২০২১। ১৩ জিলহজ ১৪৪২

ডিবি পুলিশের হাতে আটকের পর মৃত্যু

পরিবারের দাবি হত্যা

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি   

১ মে, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাটে ডিবি পুলিশের অভিযানে আটকের পর সানাউল হক বিশ্বাস (৪৪) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। পরিবারের অভিযোগ, পুলিশের নির্যাতনে মারা গেছেন তিনি। তবে পুলিশ অভিযোগ অস্বীকার করেছে। তাদের দাবি,  হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে।

সানাউল হক বিশ্বাস ভোলাহাট উপজেলার চাঁন শিকারী গ্রামের মৃত মুর্শেদ বিশ্বাসের ছেলে। তাঁর তিন মেয়ে রয়েছে।

সানাউলের ভাই মাসুদ রানা বিশ্বাস গতকাল শুক্রবার বলেন, বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে সানাউল পাশের একটি দোকানে যাচ্ছিলেন। এ সময় গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল তাঁকে আটক করে। মাসুদ রানার অভিযোগ, আটকের পর তাঁকে ব্যাপক নির্যাতন করা হয়। নির্যাতনের কারণেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে।

মাসুদ রানা আরো বলেন, মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে তাঁর ভাইকে আটক করা হলেও তিনি মাদক ব্যবসায়ী ছিলেন না। তবে মাদক নিতেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহবুব আলম খান জানান, বৃহস্পতিবার রাতে একটি বাগানে মাদক নেওয়ার সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালানোর চেষ্টা করেন সানাউল। এ সময় তিনি পড়ে গেলে ডিবি পুলিশ তাঁকে আটক করে। আটকের পর সানাউল বুকে ব্যথা অনুভব করলে তাঁকে প্রথমে ভোলাহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাত সাড়ে ১১টার দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ১২টার দিকে তিনি মারা যান।

মাহবুব আলম খান আরো জানান, সানাউল মাদক ব্যবসায়ী ছিলেন। গত ১৩ এপ্রিল তাঁর বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ১৬০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করে পুলিশ। ওই দিন তিনি বাড়িতে ছিলেন না। ওই মামলার সূত্র ধরেই গত রাতে ডিবি পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তার করতে গিয়েছিল।