kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২১ শ্রাবণ ১৪২৮। ৫ আগস্ট ২০২১। ২৫ জিলহজ ১৪৪২

গলা কেটে গৃহবধূকে হত্যা

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি   

৩০ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ৩ মিনিটে



গলা কেটে গৃহবধূকে হত্যা

ঈশ্বরদীতে আবারও দিনের বেলায় এক নারীকে গলা কেটে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। নিহত মুক্তি খাতুন রিতা (২৭) ঈশ্বরদী পৌরসভার মশুড়িয়াপাড়া এলাকার বায়োজিদ সারোয়ারের স্ত্রী। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে নিজ ঘরে হত্যার শিকার হন রিতা। এর আগে গত ১ এপ্রিল দিনদুপুরে ঈশ্বরদী শহরের স্কুলপাড়ায় আনোয়ারা বেগম (৬৫) নামের এক বৃদ্ধাকে গলা কেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

হত্যাকাণ্ডের সময় রিতার শাশুড়ি মোছা. নিলিমা খাতুন বেনুকেও (৫৫) গলা টিপে ও শ্বাসরোধে হত্যার চেষ্টা করা হয়। সে সময় তিনি চিৎকার দিলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। নিলিমা জানিয়েছেন, পাঁচ দুর্বৃত্ত এই হামলা চালায়। পাবনা পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম, ঈশ্বরদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফিরোজ কবির ও পৌরসভার মেয়র ইছাহক আলী মালিথা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

নিলিমা খাতুন বেনু জানান, তাঁর ছেলে বায়োজিদ সারোয়ার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে চাকরি করে। সেই সুবাদে বায়োজিদ সারোয়ার বেশ কিছু মানুষকে রূপপুর প্রকল্পে চাকরিও দিয়েছে। গতকাল সকাল ১১টার সময় পাঁচ যুবক চাকরির জন্য তাঁর বাড়িতে আসে। বায়োজিদ সেই সময় বাজারে ছিল। এ কারণে পুত্রবধূ রিতা আগত যুবকদের ড্রইং রুমে বসিয়ে আপ্যায়ন করে।

নিলিমা আরো জানান, তিনি নিজ কক্ষে কোরআন শরিফ পড়ছিলেন। হঠাৎ ওই যুবকরা তাঁর ঘরে ঢুকে গলা টিপে শ্বাসরোধে হত্যার চেষ্টা করে। এ সময় তিনি চিৎকার শুরু করলে ওই যুবকরা পালিয়ে যায়। পরে তিনি পুত্রবধূর কক্ষে গিয়ে মেঝেতে রিতাকে গলা কাটা অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন।

নিলিমার কথায়, হত্যাকারীদের মধ্যে তিনি একজনকে চিনতে পেরেছেন। তার নাম সাব্বির হাসান, বাড়ি নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার জোনাইল চরগোবিন্দপুর গ্রামে। বাকিদের মুখে মাস্ক থাকায় তিনি চিনতে পারেননি।

রিতার স্বামী বায়োজিদ সারোয়ার জানান, তিনি রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের বাংলা পাওয়ার কম্পানিতে চাকরি করেন। রূপপুর প্রকল্পে চাকরির জন্য তাঁর নানির বাড়ি নাটোরের জোনাইল চরগোবিন্দপুর গ্রাম থেকে কিছু মানুষ বাড়িতে এসেছেন—এমন খবর পেয়ে তিনি বাজার থেকে বাড়িতে ফেরেন। ঘরে ঢুকে তিনি স্ত্রী রিতাকে গলা কাটা অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন।

স্থানীয়দের ভাষ্য, বায়োজিদ টাকার বিনিময়ে অনেক মানুষকে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে চাকরি দিয়েছেন। এমন টাকা-পয়সা লেনদেন নিয়ে এই হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে।

ঈশ্বরদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফিরোজ কবির বলেন, ‘এই হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। সেগুলো যাচাই-বাঁছাই করা হচ্ছে। সিআইডির বিশেষ টিম আলামত সংগ্রহ করেছে। এরপর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।’



সাতদিনের সেরা