kalerkantho

শুক্রবার । ৯ আশ্বিন ১৪২৮। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১। ১৬ সফর ১৪৪৩

ফেনসিডিলসহ আটক দেখিয়ে সাংবাদিককে ‘মারধর’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফেনসিডিলসহ আটক দেখিয়ে সাংবাদিককে ‘মারধর’

আটক সাংবাদিক জাহাঙ্গীর আলম শাহীন ছবি : সংগৃহীত

এক বোতল ফেনসিডিলসহ আটক দেখিয়ে লালমনিরহাটে একজন সাংবাদিককে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। মারধরের পর তাঁকে আবার থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। ওই সাংবাদিক জাহাঙ্গীর আলম শাহীন দৈনিক জনকণ্ঠ ও বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) লালমনিরহাট জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত। এ ছাড়া তিনি লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার মহিষ খোঁচা দ্বিমুখী স্কুল অ্যান্ড কলেজের সহকারী অধ্যাপক। জাহাঙ্গীর আলম শাহীন লালমনিরহাট জেলা ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

সাংবাদিক জাহাঙ্গীর আলমকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে লালমনিরহাট-১৫ বিজিবি ব্যাটালিয়নের কুলাঘাট ক্যাম্পের টহল দলের বিরুদ্ধে। শাহীনের পরিবারের সদস্যরা জানান, গত বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে সদর উপজেলার কুলাঘাট ইউনিয়নের রতনাই বেইলি ব্রিজ এলাকায় জাহাঙ্গীর আলমের সঙ্গে বিজিবির টহল দলের তর্ক হয়। এ ঘটনায় এক বোতল ফেনসিডিল দিয়ে তাঁকে আটক করে কোমরে দড়ি বেঁধে এবং হাতকড়া পরিয়ে থানায় নেওয়া হয়েছে।

লালমনিরহাট-১৫ বিজিবি ব্যাটালিয়নের কুলাঘাট ক্যাম্পের ইনচার্জ হাবিলদার আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘আমরা তাঁকে মারধর করিনি। তিনি পালানোর চেষ্টা করেন। এ সময় ধস্তাধস্তিতে হয়তো আঘাত লেগে থাকতে পারে।’ প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমরা রতনাই বেইলি ব্রিজে টহল দিচ্ছিলাম। এ সময় জাহাঙ্গীর আলম মোটরসাইকেলে লালমনিরহাট শহরে যাচ্ছিলেন। আমরা তাঁকে সার্চ করে এক বোতল ভারতীয় ফেনসিডিল পাই। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করে তাঁকে লালমনিরহাট সদর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা করা হয়েছে।’



সাতদিনের সেরা