kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৩ আষাঢ় ১৪২৮। ১৭ জুন ২০২১। ৫ জিলকদ ১৪৪২

করোনার ঝুঁকিপূর্ণ ৩৮ জেলায় কাজ করবে ব্র্যাক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনা সংক্রমণের উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা ৩৮টি জেলার মানুষদের সহায়তার উদ্যোগ নিয়েছে ব্র্যাক। স্থানীয় পর্যায়ে স্বাস্থ্যসেবা খাতকে শক্তিশালী করতে অংশীদার বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থাগুলোকে নিয়ে কাজে নামছে তারা।

গতকাল বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের সিভিল সোসাইটি অর্গানাইজেশনগুলোর সম্মিলিত মঞ্চ সিএসও অ্যালায়েন্সের সঙ্গে জরুরি বৈঠকে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়। এতে নীতিগতভাবে সিদ্ধান্ত হয় যে ‘করোনা প্রতিরোধে সামাজিক দুর্গ’ নামে সারা দেশে এনজিওরা একসঙ্গে কাজ করবে। 

এতে সভাপতিত্ব করেন সিএসও অ্যালায়েন্সের সমন্বয়ক ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা রাশেদা কে. চৌধূরী। আরো উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য ও প্রিপ ট্রাস্টের নির্বাহী পরিচালক অ্যারোমা দত্ত, আহছানিয়া মিশনের নির্বাহী পরিচালক এহসানুল হক, হাসিন জাহান, সুলতানা কামাল, মালেকা বানু, আরডিআরএস চেয়ারপারসন এস এন কৈরি, ওয়াটার এইডের রিজিওনাল ডিরেক্টর খায়রুল ইসলাম। 

ব্র্যাক জানায়, এর মাধ্যমে ওই জেলাগুলোর পাঁচ কোটি ৮০ লাখ বাসিন্দার কাছে করোনা প্রতিরোধ, মাস্ক ব্যবহারের ক্ষেত্রে কাজ করা এবং টিকার জন্য নিবন্ধনের পাশাপাশি সচেতনতামূলক বার্তা ও ‘মিসইনফরমেশন বন্ডহোল্ডারস’ উদ্যোগ নেওয়া হবে।

সংক্রমণের হার ১০ শতাংশের বেশি থাকা এই উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ জেলাগুলো হলো ঢাকা, চট্টগ্রাম, রাঙামাটি, সিলেট, মৌলভীবাজার, মুন্সীগঞ্জ, নরসিংদী, খুলনা, নারায়ণগঞ্জ, রাজবাড়ী, ফেনী, নোয়াখালী, চাঁদপুর, শরীয়তপুর, লক্ষ্মীপুর, কুমিল্লা, বরিশাল, রাজশাহী, বগুড়া, নড়াইল, নীলফামারী, গাজীপুর, ফরিদপুর, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, যশোর, মাদারীপুর, নওগাঁ, রংপুর, কিশোরগঞ্জ, নাটোর, টাঙ্গাইল, পিরোজপুর, পটুয়াখালী, ভোলা, মানিকগঞ্জ, গাইবান্ধা, দিনাজপুর ও ময়মনসিংহ।

এ বিষয়ে ব্র্যাকের নির্বাহী পরিচালক আসিফ সালেহ বলেন, ‘করোনা প্রতিরোধের যুদ্ধ দীর্ঘমেয়াদি। কমিউনিটি অংশীদারত্ব ছাড়া এটা জয় করা সম্ভব নয়। সম্পদের অপ্রতুলতা থাকলেও আমরা আমাদের যা কিছু আছে, তা নিয়েই এই সামাজিক দুর্গ গড়ে তোলার যুদ্ধে নেমে পড়েছি।’



সাতদিনের সেরা