kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৩ আষাঢ় ১৪২৮। ১৭ জুন ২০২১। ৫ জিলকদ ১৪৪২

সীমিত আকারে ভার্চুয়ালি আদালত কার্যক্রম চালানোর সিদ্ধান্ত

হাইকোর্টে বসবেন মাত্র চারটি বেঞ্চ

প্রত্যেক জেলায় থাকবেন মাত্র একজন ম্যাজিস্ট্রেট

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৫ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে সারা দেশে সরকার ঘোষিত লকডাউনের কারণে সীমিত আকারে ভার্চুয়ালি আদালত কার্যক্রম চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট। আজ সোমবার থেকেই এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে বলে সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে একটি বেঞ্চ এবং হাইকোর্ট বিভাগে মাত্র চারটি বেঞ্চ বসবেন। আর প্রত্যেক জেলা ও মহানগরে একটি করে ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট খোলা থাকবে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এভাবেই চলবে বিচার কার্যক্রম। এসব আদালতে অতীব জরুরি বিষয় ছাড়া অন্য কিছু শুনানি হবে না।

প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের সভাপতিত্বে গতকাল রবিবার রাতে সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র বিচারপতিদের অনুষ্ঠিত এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের মুখপাত্র ও বিশেষ কর্মকর্তা মোহাম্মদ সাইফুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আপিল বিভাগের একজন বিচারপতি মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার বসবেন। আর হাইকোর্ট বিভাগে তিনটি দ্বৈত বেঞ্চ ও একটি একক বেঞ্চ বসবেন। এ ছাড়া প্রতিদিন গ্রেপ্তার করা ব্যক্তি বা আসামিদের বিষয়ে আদেশ দিতে প্রত্যেক জেলায় ও মহানগরে একজন করে ম্যাজিস্ট্রেট থাকবেন।

গতকাল পর্যন্ত আপিল বিভাগে দুটি বেঞ্চ ও হাইকোর্ট বিভাগে ৫২টি বেঞ্চ চালু ছিল। করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে আপিল বিভাগের দুটি বেঞ্চই ভার্চুয়ালি বিচারকাজ পরিচালিত হচ্ছিল। আর হাইকোর্ট বিভাগের বেশির ভাগ বেঞ্চেই ভার্চুয়ালি বিচারকাজ চলছিল।



সাতদিনের সেরা