kalerkantho

শনিবার । ৫ আষাঢ় ১৪২৮। ১৯ জুন ২০২১। ৭ জিলকদ ১৪৪২

১১ এপ্রিলের সব ভোট স্থগিত

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় আগামী ১১ এপ্রিলের সব নির্বাচন স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন। কমিশন বলেছে, পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সব নির্বাচন স্থগিত থাকবে। গতকাল বৃহস্পতিবার প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদার সভাপতিত্বে এক বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়।

১১ এপ্রিল দেশের ৩৭১টি ইউনিয়ন পরিষদ, ১১টি পৌরসভায় সাধারণ নির্বাচন ও লক্ষ্মীপুর-২ আসনে উপনির্বাচন হওয়ার কথা ছিল। গতকালের বৈঠক শেষে ইসির অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান।

অশোক কুমার দেবনাথ বলেন, পরিস্থিতি ‘স্বাভাবিক’ না হওয়া পর্যন্ত ভোট স্থগিত থাকবে। সেই সঙ্গে বন্ধ থাকবে সব ধরনের প্রচার। পরে যখনই ভোটের তারিখ নির্ধারণ করা হবে, প্রার্থীরা তখন নির্বাচনে অংশ নেবেন।

দেশে করোনা পরিস্থিতির দ্রুত অবনতি হচ্ছে কয়েক দিন ধরে। গতকাল সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্ত হয়েছে ছয় হাজার ৪৬৯ জনের দেহে এবং মৃত্যু হয়েছে আরো ৫৯ জনের। কমিশন আগেই জানিয়েছিল, ১১ এপ্রিলের ভোটের বিষয়ে সিদ্ধান্ত বৃহস্পতিবার জানানো হবে। অবশ্য গত বুধবার করোনার এমন পরিস্থিতির মধ্যে চার পৌরসভায় ভোট হয়েছে।

অশোক কুমার আরো বলেন, পাবনার সুজানগর পৌরসভার নির্বাচন হওয়ার ব্যাপারে আদালতের আদেশ আছে। তাই আগামী ৪ এপ্রিল এই পৌরসভার ভোট গ্রহণ করা হবে।

এদিকে নির্বাচন কমিশন সূত্র জানায়, গতকালের বৈঠকে রাজনৈতিক দলের সর্বস্তরে ৩৩ শতাংশ নারী প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করার বিষয়টি নিয়েও আলোচনা হয়েছে। সিদ্ধান্ত হয়েছে, নির্বাচন কমিশনে নিবন্ধিত দলগুলো কত শতাংশ নারী প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করতে পেরেছে জানতে চেয়ে চিঠি দেওয়া হবে। অবশ্য নির্বাচন কমিশন নিজেরাই এ বিষয়ে দলগুলোকে আরো সময় দেওয়ার পক্ষে। এ বিষয়ে একটি আইনের খসড়া আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছে কমিশন। তাতে এই সময় ২০৩০ সাল পর্যন্ত বাড়ানোর প্রস্তাব রাখা হয়েছে। কমিশনের এ প্রস্তাব আইনে পরিণত না হওয়ায় বর্তমান আইন অনুযায়ী দলগুলোকে চিঠি দেবে ইসি।