kalerkantho

সোমবার । ২ কার্তিক ১৪২৮। ১৮ অক্টোবর ২০২১। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

বিয়ানীবাজারে তরুণীকে কুপিয়ে হত্যা

বিয়ানীবাজার (সিলেট) প্রতিনিধি   

১৭ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিলেটের বিয়ানীবাজারে নাজমিন আক্তার (১৮) নামের এক তরুণীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার শেওলা ইউনিয়নের বালিঙ্গা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নাজিম উদ্দিন (২৩) নামে প্রতিবেশী এক তরুণ এই ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই তরুণকে আটক করেছে।

এলাকাবাসী জানায়, নাজিম উদ্দিন গতকাল নাজমিনদের বাড়িতে দিনমজুরের কাজ করতে যান। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে টেলিভিশন দেখছিলেন নাজমিন। এ সময় নাজিম ঘরে ঢুকে বঁটি দিয়ে নাজমিনের গলায় কোপ মেরে পালিয়ে যান। আর নাজমিন ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান। একতরফা প্রেমের জের ধরেই এ হত্যাকাণ্ড বলে ধারণা করছে পরিবার ও পুলিশ।

জানা গেছে, স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি সামসুল হক চৌধুরী কস্তই মিয়া নাজমিনকে নিজ মেয়ের মতোই শিশুকাল থেকে লালন-পালন করেন। সম্প্রতি তিনি মেয়ের বিয়ের কথাবার্তা চূড়ান্ত করেছিলেন।

সামসুল হক চৌধুরী কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘বখাটে নাজিম উদ্দিনের সঙ্গে আমার মেয়ের কোনো ধরনের সম্পর্ক ছিল না। নাজিম ও তার পরিবারের মাথা গোঁজার ঠাঁই না থাকায় দয়া করে আমার বসতবাড়ির পাশে ওদের থাকতে দিয়েছি। আর সেটাই আমার আদরের মেয়ের জন্য কাল হয়ে দাঁড়াল।’

ইউপি সদস্য আবুল কালাম খান বলেন, ‘নাজমিনের হত্যাকারী নাজিমের বাড়ি বড়লেখা উপজেলার বাহাদুরপুর এলাকায়। সে হয়তো একতরফাভাবে নাজমিনকে প্রেম নিবেদন করেছে। তাতে প্রত্যাখ্যাত হয়ে ক্ষোভের বশবর্তী হয়ে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে।’

বিয়ানীবাজার থানার ওসি হিল্লোল রায় জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি শেষে মরদেহ মর্গে পাঠায়। পরবর্তীতে অভিযোগের সূত্র ধরে অভিযান চালিয়ে উপজেলার কুড়ারবাজার ইউনিয়নের আঙ্গারজোড় বালুচর এলাকা থেকে রাত ৮টার দিকে নাজিম উদ্দিনকে আটক করা হয়েছে।



সাতদিনের সেরা