kalerkantho

বুধবার । ২৯ বৈশাখ ১৪২৮। ১২ মে ২০২১। ২৯ রমজান ১৪৪২

অস্তিত্বের সংকটে পাহাড়িরা

রাঙামাটি প্রতিনিধি   

৯ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



অস্তিত্বের সংকটে পাহাড়িরা

পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের চেয়ারম্যান ও পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির সভাপতি জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় (সন্তু) লারমা বলেছেন, ‘অনেক আশা-ভরসা নিয়ে আমরা ১৯৯৭ সালে পার্বত্য চুক্তি করেছিলাম। কিন্তু গত ২৩ বছরে চুক্তি বাস্তবায়নের গতি দেখে আমরা হতাশ। চুক্তির পর জুম্ম জনগণের জীবনমান উন্নয়নের অনেক আশা থাকলেও বর্তমানে আমরা অস্তিত্ব সংকটের মধ্যে দিন কাটাচ্ছি।’ আন্তর্জাতিক নারী দিবস এবং পাহাড়ি নারীদের রাজনৈতিক সংগঠন হিল উইমেন্স ফেডারেশনের ৩৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল রাঙামাটিতে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় তিনি এসব কথা বলেন। সকালে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠান আয়োজন করে পার্বত্য চট্টগ্রাম মহিলা সমিতি ও হিল উইমেন্স ফেডারেশন। নারী অধিকার রক্ষার পাশাপাশি পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়নের আন্দোলনে এগিয়ে আসতে পাহাড়ের নারীদের আহ্বান জানান সন্তু লারমা। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘আগামী ২৬ মার্চ দেশে স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন করা হবে। এই ৫০ বছরে অস্তিত্ব হারাতে হারাতে আজ আমরা সর্বস্বান্ত। চুক্তি যথাযথ বাস্তবায়িত না হওয়ায় হতাশা আরো বাড়ছে। আমরা এখন তাকিয়ে আছি কবে কিভাবে পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি বাস্তবায়িত হবে। আমরা অপেক্ষায় আছি; কিন্তু চুক্তি বাস্তবায়িত হচ্ছে না। চুক্তি বাস্তবায়িত না হওয়ার ফলে জুম্ম নারী ও পুরুষ সব ক্ষেত্রে বঞ্চিত হচ্ছে। পার্বত্য অঞ্চলে এক ধরনের শাসনব্যবস্থা চলছে, যার দ্বারা এখানকার জুম্ম নারীরা শোষণের শিকার হচ্ছে। পার্বত্য চট্টগ্রাম মহিলা সমিতির রাঙামাটি জেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক রিতা চাকমা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।



সাতদিনের সেরা