kalerkantho

রবিবার। ২৮ চৈত্র ১৪২৭। ১১ এপ্রিল ২০২১। ২৭ শাবান ১৪৪২

ত্রিপুরার সঙ্গে মৈত্রী সেতু উদ্বোধন আজ

সহজ হবে পণ্য ও যাত্রী পরিবহন

কূটনৈতিক প্রতিবেদক   

৯ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



ফেনী নদীর ওপর বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে মৈত্রী সেতুর উদ্বোধন হচ্ছে আজ মঙ্গলবার। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি আজ দুপুর সাড়ে ১২টায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ওই সেতু উদ্বোধন করবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও এই অনুষ্ঠানে ভিডিও বার্তা দিতে পারেন। আগামী ২৬ ও ২৭ মার্চ মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রাক্কালে এই সেতু উদ্বোধন করা হচ্ছে।

এদিকে মৈত্রী সেতুকে বাংলাদেশ, ভারত—দুই দেশই ক্রমবর্ধমান সম্পর্ক ও বন্ধুত্বের প্রতীক হিসেবে দেখছে। ১ দশমিক ৯ কিলোমিটার দীর্ঘ ওই সেতু ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের সাব্রুমের সঙ্গে খাগড়াছড়ি জেলার রামগড়কে সংযুক্ত করবে। সাব্রুম থেকে চট্টগ্রাম বন্দরের দূরত্ব মাত্র ৮০ কিলোমিটার। এই সেতু চালু ও চট্টগ্রাম বন্দরের সঙ্গে সড়কপথে যুক্ত হওয়ার মাধ্যমে ত্রিপুরা ভারতের উত্তর-পূর্ব রাজ্যগুলোর প্রবেশদ্বার হয়ে উঠছে। সেতুটি বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বাণিজ্য এবং মানুষে মানুষে যোগাযোগ ও চলাচলের ক্ষেত্রে নতুন অধ্যায় রচনা করবে বলে উভয় দেশ আশা করছে। মৈত্রী সেতু নির্মাণ করেছে ভারতের ন্যাশনাল হাইওয়েজ অ্যান্ড ইনফ্রাস্ট্রাকচার ডেভেলপমেন্ট করপোরেশন লিমিটেড। এর প্রকল্প ব্যয় ছিল ১৩৩ কোটি রুপি। এদিকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী আজ ত্রিপুরা রাজ্যের সাব্রুমে বাংলাদেশ সীমান্তে একটি সমন্বিত চেকপোস্টের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। এই সমন্বিত চেকপোস্ট দুই দেশের যাত্রী ও পণ্য পরিবহন সহজ করবে। ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোর পণ্যের নতুন বাজার সৃষ্টি এবং বাংলাদেশ ও ভারতের যাত্রীদের নির্বিঘ্নে চলাচলেও সহায়ক হবে ওই চেকপোস্ট। ভারতের স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষ ২৩২ কোটি রুপি ব্যয়ে ওই সমন্বিত চেকপোস্ট নির্মাণ করছে।

মন্তব্য