kalerkantho

বুধবার । ১ বৈশাখ ১৪২৮। ১৪ এপ্রিল ২০২১। ১ রমজান ১৪৪২

নৌ প্রতিমন্ত্রী বললেন

লালদিয়া চরের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহ্মুদ চৌধুরী বলেছেন, ‘লালদিয়ার চরে ভাড়া দিয়ে যারা অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড করেছে, সেই স্বার্থান্বেষীদের তালিকা করা হয়েছে। গুটিকয়েক মানুষের জন্য চট্টগ্রাম বন্দরের সুনাম নষ্ট বরদাশত করা হবে না। লালদিয়া চরের অবৈধ উচ্ছেদ একটি চলমান প্রক্রিয়া, আমরা এত দিন ধৈর্যের পরিচয় দিয়েছি।’

গতকাল বুধবার বিকেলে প্রতিমন্ত্রী চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছে সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে এসব কথা বলেন। প্রতিমন্ত্রী এমন সময় এ কথা বললেন, যখন উচ্চ আদালতের নির্দেশনা মেনে এক সপ্তাহের মধ্যে উচ্ছেদ অভিযান শুরু করতে হবে চট্টগ্রাম বন্দরকে। গত ২২ ফেব্রুয়ারি পতেঙ্গার চট্টগ্রাম বন্দরের লালদিয়া চরে উচ্ছেদের প্রতিবাদে মানববন্ধন করে স্থানীয় লোকজন। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সাবেক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজনও উচ্ছেদের প্রতিবাদকারীদের পক্ষ নিয়েছেন।

নৌ প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘কারো যদি কোনো ঠিকানা না থাকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন যে তাদের ঠিকানা দেবেন, কিন্তু অবৈধভাবে যারা দখল করে থাকবে তাদের আমরা উচ্ছেদ করব। যারা এত দিন এগুলো দখল করে রেখে ফায়দা লুটেছে তাদেরও তালিকা তৈরি করেছি। সময় নিয়ে সেই সব চিহ্নিত অপরাধীকেও আইনের আওতায় আনব, কিন্তু এ বাংলাদেশের সংবিধান মানুষের যে অধিকার দিয়েছে, তা সরকার খর্ব করবে না।’

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘পুনর্বাসন আমরা তাদেরই করব, যারা গৃহহীন। যারা সচ্ছল তাদের পুনর্বাসনের সুযোগ নেই। আমরা যাদের পুনর্বাসন করব সেই তালিকা হয়েছে। যারা এখন আছে এর বেশির ভাগই ভাড়াটিয়া। কারা এ ধরনের সুযোগ নিয়ে ভাড়াটিয়াদের কাছ থেকে অর্থ আদায় করছে সেটির তালিকা করেছি, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব। যারা বন্দর এলাকার জমি ব্যবহার করে অর্থ আদায় করছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।’

মন্তব্য