kalerkantho

বুধবার । ২৯ বৈশাখ ১৪২৮। ১২ মে ২০২১। ২৯ রমজান ১৪৪২

সংক্ষিপ্ত

নার্সের বদলে টিকা দিলেন চেয়ারম্যান

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুষ্টিয়া   

৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



নার্সের বদলে টিকা দিলেন চেয়ারম্যান

যিনি টিকা দিচ্ছেন, তিনি কোনো নার্স বা চিকিৎসক নন। কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান খান টিকা দিতে পারেন কি না, সেই প্রশ্ন উঠেছে বিভিন্ন মহলে। গতকাল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। ছবি : কালের কণ্ঠ

কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলায় চিকিৎসক বা প্রশিক্ষিত নার্সের পরিবর্তে তিনজনের শরীরে করোনার টিকা দিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান খান। তখন পাশে দাঁড়িয়েছিলেন চিকিৎসক, নার্স ও স্বেচ্ছাসেবকরা। এর ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। তিনি এটি করতে পারেন কি না, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে। গতকাল রবিবার দেশজুড়ে করোনার টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়েছে। সারা দেশে এক হাজারের বেশি কেন্দ্রে টিকা দেওয়া হচ্ছে। টিকা দেওয়ার জন্য আগেই প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে টিকাদানকর্মীদের। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, সকাল ১১টার দিকে কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কেন্দ্রে করোনার টিকা দেওয়া শুরু হয়। সেখানে দায়িত্বরত চিকিৎসক, নার্স ও স্বেচ্ছাসেবকরা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় সিরিঞ্জ হাতে নিয়ে তিনজনের শরীরে টিকা দেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মান্নান খান। নার্স ও চিকিৎসকরা তাঁকে সহায়তা করেন। ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া ছবি ও ভিডিওতে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানকে তিনজনের হাতে টিকা পুশ করতে দেখা যায়। কুষ্টিয়ার সিভিল সার্জন আনোয়ারুল ইসলাম কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘প্রশিক্ষিত নার্স বা ডাক্তার ছাড়া একজন জনপ্রতিনিধি কোনোভাবেই এটি করতে পারেন না।’ এ ব্যাপারে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মান্নান খান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘যাঁরা অতিথি ছিলেন, তাঁদের অনেকেই ফটোসেশনের জন্য এ রকম করেছেন। নার্স টিকা দেওয়ার পর আমিও অন্যদের মতো সিরিঞ্জ বের করেছি মাত্র।’